ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, সেপ্টেম্বর ১০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- রাজধানীর খিলগাঁও ফ্লাইওভার তদারকিতে গাফিলতি দৃশ্যত স্বীকার করে নিয়েছেন ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাদেক হোসেন খোকা।

শনিবার তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “সব সময় নজরদারি করা হয়েছে, তবে প্রকৌশলীরা তা দেখতে পায়নি।”

২০০৫ সালে উদ্বোধনের পর থেকে ফ্লাইওভার বা উড়াল সড়কটি তদারকি করছে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন। নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ঘটনার জন্য তদারককারী সংস্থাকে দায়ী করেছে।

নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করতে শনিবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে সিটি কর্পোরেশন।

ক্রটি দীর্ঘ দিনের হওয়া স্বত্বেও কেন তা চোখে পড়েনি- এক সাংবাদিকের এই প্রশ্নের জবাবে মেয়র দৃশ্যত বিরক্তি প্রকাশ করে বলেন, “প্রকৌশলীরা সাংবাদিকদের মত ঘুরে বেড়ায় না।”

তবে বিষয়টি নজরে আসার পরপরই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। ক্রটি জানতে দেরি হয়েছে বলে স্বীকার করেন খোকা।

ফ্লাইওভারটি উদ্বোধনের এক বছর পর সিটি কর্পোরেশনের কাছে হস্তান্তর করা হয় জানিয়ে মেয়র বলেন, হস্তান্তরের সময় এ ধরনের কোনো ক্রটি প্রকৌশলীদের চোখে পড়েনি।

ক্রটির বিষয়ে ভবিষ্যতে তদারকি আরো জোরদার করা হবে বলে জানান মেয়র।

পশ্চিম পাশের একটি অংশ দেবে যাওয়ায় শুক্রবার রাত ৮টার দিকে দেশের বৃহত্তম এই উড়াল সেতুর ওপর দিয়ে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। প্রায় ১৭ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর শনিবার দুপুরে হালকা যানবাহন চলাচলের জন্য আবার সেতুটি খুলে দেওয়া হয়।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসএইচএ/জিএনএ/১৭৪৯ ঘ.