ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, অক্টোবর ২০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- পদ্মা সেতু প্রকল্পে কথিত দুর্নীতির তদন্ত হচ্ছে জানিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এক্ষেত্রে প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ প্রকল্পে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন স্থগিতের সিদ্ধান্ত সরকার যথাযথ বলে মনে করছে না। সংস্থাটিকে তাদের এ সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানানো হয়েছে।

দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতুর অর্থায়ন স্থগিতের ঘোষণার প্রেক্ষাপটের বৃহস্পতিবার একটি প্রেসনোটে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দিয়েছে সরকার।

সরকার আবার বলেছে, পদ্মা সেতু প্রকল্পে এখন পর্যন্ত কোনো দুর্নীতি হয়নি।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ২৯০ কোটি ডলার। এর মধ্যে ১২০ কোটি ডলার দেওয়ার কথা বিশ্বব্যাংকের। এছাড়া এডিবি ৬১ কোটি, জাইকা ৪০ কোটি এবং ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংক ১৪ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে। বাকি অর্থ দেবে সরকার।

প্রেসনোটে বলা হয়েছে, মূল সেতুর নির্মাণ কাজের ঠিকাদারদের প্রাক-যোগ্যতা মূল্যায়ন স¤পর্কে বিশ্বব্যাংক যে অভিযোগ সরকারের কাছে দিয়েছে, ইতোমধ্যেই সে অভিযোগের বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

“সরকার আশা করছে, দুদকের তদন্তে বিশ্বব্যাংক সহায়তা করবে এবং তার ফলাফল অচিরেই পাওয়া যাবে। দুর্নীতির প্রমাণ পেলে শক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এমকে/এমআই/১৫৫৫ ঘ.

_________________
সংবাদটি পাঠকের মন্তব্যের জন্য ব্লগে শেয়ার করা হলো। বিডিনিউজ টুয়েন্টিফর ডটকম ব্লগ একটি সিটিজেন জার্নালিজম ভিত্তিক ব্লগ। এ সংবাদটি সম্পর্কে আপনার কোনো প্রতিক্রিয়া থাকলে লিখতে পারেন স্বতন্ত্র পোস্টে। পডকাস্ট করতে পারেন অডিও, ভিডিও মাধ্যমে। কোনো পরামর্শ বা অভিযোগ থাকলে যোগাযোগ করুন ফেসবুক গ্রুপে