ক্যাটেগরিঃ bdnews24

বেনজির আহমেদ বেনু
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম প্রতিনিধি

নরসিংদী, নভেম্বর ০২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- নরসিংদীতে আন্তঃনগর এগারোসিন্ধুর এক্সপ্রেস ট্রেনের ছয়টি বগি পুড়িয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা।

নরসিংদী পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা লোকমান হোসেন হত্যার প্রতিবাদে ছাত্রলীগের ডাকে ৭২ ঘণ্টার হরতালের শুরুতে বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

নরসিংদী রেল স্টেশনের মাস্টার মরণ চন্দ্র দাস বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সকাল ১০টার দিকে ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জগামী ট্রেনটি নরসিংদীতে পৌঁছানোর পর বিক্ষোভকারীরা আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে ছয়টি বগি পুড়ে গেছে। আগুন নেভানোর চেষ্টা চলছে।”

তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে শহরের সদর রোডের আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে মুখোশধারীদের গুলিতে গুরুতর আহত হন লোকমান। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা রাতে নরসিংদী সার্কিট হাউস এবং রেল স্টেশনে ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। তারা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও রেলপথ অবরোধ করে রাখে। তবে বুধবার সকালে আবার রেল চলাচল শুরু হয়।

নরসিংদী শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান শ্রেষ্ঠ মেয়র হিসেবে দুইবার সরকারের স্বর্ণপদক লাভ করেন।

তাকে হত্যার প্রতিবাদে রাতেই ৭২ ঘণ্টার হরতাল ডাকে জেলা ছাত্রলীগ। সকালে নরসিংদী শহর ঘুরে দেখা যায়, দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে শহরের বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য এস এম কাইয়ুম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বুধবার সকাল থেকে হরতাল কর্মসূচি শুরু হলেও লোকমানের জানাজা ও দাফনের বিষয়টি মাথায় রেখে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কর্মসূচি শিথিলভাবে পালিত হবে।”

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, সকাল ১১টার দিকে ময়নাতদন্ত শেষে লোকমানের মরদেহ নিয়ে একটি এম্বুলেন্স নরসিংদীর উদ্দেশে রওনা হয়েছে। লাশ নরসিংদী পৌঁছানোর পর বিকেলে জানাজা হবে বলে এস এম কাইয়ুম জানান।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। রাতেই পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি এমএইচ নুরুজ্জামান, র‌্যাব ১১ এর অতিরিক্ত ডিআইজি লে. কর্নেল মোস্তফা কামাল নরসিংদী পৌঁছান।

নরসিংদীর পুলিশ সুপার আক্কাছ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, “নরসিংদী ও আশপাশের জেলাগুলো থেকে বিপুল সংখ্যাক পুলিশ, র‌্যাব সদস্যকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরে মোতায়েন করা হয়েছে।”

হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে লোকমান হোসেন নিহত হওয়ার পর মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে নরসিংদী জেলা বিএনপির সভাপতি ও দলটির কেন্দ্রীয় শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবীর খোকনকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাকে নরসিংদীতে নিয়ে আসা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার মেহেদী হাসান।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/এএল/জেকে/১১৩০ ঘ.