ক্যাটেগরিঃ bdnews24

নয়া দিল্লি , নভেম্বর ০৫ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- মালদ্বীপে দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা-সার্কের সপ্তদশ শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত সেপ্টেম্বরে মনমোহন সিংয়ের ঢাকা সফরের সময় তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি না হওয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠার পর এটাই হবে দুই প্রধানমন্ত্রীর প্রথম বৈঠক।

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব রঞ্জন মাথাই শনিবার নয়া দিল্লিতে সাংবাদিকদের জানান, দুই প্রধানমন্ত্রী দ্বিপক্ষীয় বিভিন্ন বিষয় ছাড়াও আঞ্চলিক সহযোগিতা এগিয়ে নিতে আলোচনা করবেন।

এই বৈঠকে তিস্তার পানি বণ্টন ও ট্রানজিট নিয়েও আলোচনা হবে কি না জানতে চাইলে মাথাই বলেন, গত সেপ্টেম্বরে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা সফরের সময় ‘অমীমাংসিত থাকা’ বিষয়গুলো নিয়েও মালদ্বীপে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আলোচনা হতে পারে।

গত ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বর মনমোহন সিংয়ের ওই সফরে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন নিয়ে দুই দেশের মধ্যে চুক্তি হওয়ার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের আপত্তিতে তা স্থগিত হয়। দৃশ্যতঃ এই পরিপ্রেক্ষিতেই দুই দেশের মধ্যে ট্রানজিটের সম্মতিপত্র বিনিময়ের বিষয়টিও স্থগিত করে বাংলাদেশ।

তিস্তা চুক্তি না হওয়ায় বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতের গণমাধ্যমেও ব্যাপক সমালোচনা হয়। প্রধানমন্ত্রী মনমোহনও হতাশা প্রকাশ করে বলেন, চুক্তি না হওয়াটা দুঃখজনক।

ওই সফরে দুই প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের পর এক যৌথ ইশতেহারে বলা হয়, সার্ককে শক্তিশালী করার পাশাপাশি আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্র প্রসারিত করতে দুই সরকারই একমত হয়েছে।

আগামী ১০ ও ১১ নভেম্বর মালদ্বীপের আদ্দু দ্বীপে সপ্তদশ সার্ক শীর্ষ সম্মেলন শুরু হবে। মালদ্বীপ, বাংলাদেশ ও ভারত ছাড়াও সার্কের সদস্য দেশ নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা এই সম্মেলনে যোগ দেবেন।

ভারতীয় কর্মকর্তারা জানান, এবারের সম্মেলনে সার্ক বীজ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা ও জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় সহযোগিতাসহ চারটি বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/জেকে/১৫৪৪ ঘ.