ক্যাটেগরিঃ bdnews24

বরগুনা, নভেম্বর ১৩ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- যৌতুক চেয়ে বিয়ের আসরে তালাক পাওয়া বর শওকত আলী খান হীরণ ও তার ফুফুর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক গোলাম মো. হাসিবুল আলম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কেউ যৌতুক দাবি করতে পারে না। যৌতুক দাবি করা অন্যায়।”

হীরণ পটুয়াখালীর কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। কলাপাড়া পৌরসভার মাদরাসা রোডের বাসিন্দা শাহ আলম খানের ছেলে শওকত বরিশাল বিএম কলেজ থেকে øাতকোত্তর পাস করেন।

যৌতুক চাওয়া বরের ফুফু তাহমিনা বেগম কলাপাড়া সদরের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

শুক্রবার বিয়ের প্রীতিভোজ শেষে বরের হাতে মেয়েকে তুলে দেওয়ার সময় বরের ফুফু যৌতুক চান কনের বাবার কাছে। এর প্রতিবাদে কনে ফারজানা ইয়াসমিন বিয়ের আসরেই বরকে তালাক দেন।

যৌতুক চাওয়ায় বিয়ের আসরে বরকে তালাক দেওয়ার খবরটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ব্যাপক আলোচনা হয়।

ঢাকার ইডেন কলেজ থেকে সমাজকল্যাণে প্রথম শ্রেণীতে øাতকোত্তর পাস করা ফারজানা বরগুনার আমতলী উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের কালিপুরা গ্রামের খলিলুর রহমানের মেয়ে। ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরিরত রয়েছেন ফারজানা।

বিয়ে ভেঙে যাওয়ায় শওকতের বাবা কলাপাড়ায় এবং ফারজানার বাবা আমতলী থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/এমএইচপি/পিডি/১৯৫০ ঘ.