ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, নভেম্বর ২৯ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- মন্ত্রিসভায় আসন্ন রদবদলে মন্ত্রণালয় হারাতে যাচ্ছেন বহুল আলোচিত যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন- সরকারের উচ্চ পর্যায়ের একটি সূত্র মঙ্গলবার এ কথা জানিয়েছে।

নতুন মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়া ওবায়দুল কাদের যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেতে পারেন বলে জানিয়েছে কয়েকটি সূত্র।

আবুল হোসেনকে অন্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে।

ক্ষমতাসীন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদেরের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র বলছে, তথ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিতে ‘অনিচ্ছুক’ ওবায়দুলের আগ্রহ যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে।

সোমবার মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়া তিনজনের একজন ওবায়দুল কাদের আওয়ামী লীগের আগের মেয়াদের সরকারে যুব, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

পদ্মা সেতু ‘দুর্নীতি’ নিয়ে তোপের মুখে থাকা আবুল হোসেনের বিরুদ্ধে সড়ক মেরামত না করারও অভিযোগ আছে।

গত অগাস্টে মানিকগঞ্জে এক সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও এটিএন নিউজের প্রধান সম্পাদক মিশুক মুনীরসহ পাঁচজনের মৃত্যুর পর তার পদত্যাগের দাবি জোরালো হয়ে ওঠে।

একটি সূত্র বলেছে, “ওবায়দুলের আগ্রহ এবং গুরুত্বপূর্ণ পদ্মা সেতু প্রকল্প নিয়ে এগোনোর ক্ষেত্রে নতুন মুখের প্রয়োজনীয়তার কারণে তাকে এ মন্ত্রণালয়ে দেখা যেতে পারে।”

সোমবার মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়া অন্য দুজন হলেন সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ও হাছান মাহমুদ।

সুরঞ্জিত তার প্রায় ৫০ বছরের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে এই প্রথমবারের মতো মন্ত্রিত্ব পেলেন। অন্যদিকে বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে থাকা হাছান এদিন হন পূর্ণ মন্ত্রী।

২০০৯ সালের ৬ জানুয়ারি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগে ৩২ সদস্যের মন্ত্রিসভা গঠন হয়। বর্তমানে এ মন্ত্রিসভায় আছেন ৪৫ জন- এদের ২৮ জন মন্ত্রী এবং ১৭ জন প্রতিমন্ত্রী।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/জিএনএ/পিডি/২২৩১ ঘ.