ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

লন্ডন, নভেম্বর ৩০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/রয়টার্স)- শিক্ষক, হাসপাতালকর্মী ও সীমান্তরক্ষীসহ কর্মজীবীদের ডাকা এক ব্যাপক ধর্মঘটে অচল হতে চলেছে যুক্তরাজ্য। দেশটির গত ৩০ বছরের ইতিহাসে এ ধরনের ধর্মঘটের কোনো নজির নেই।

বুধবার শুরু হচ্ছে এই ধর্মঘট। দেশের জোট সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করাই ধর্মঘটকারীদের উদ্দেশ্য। তবে ক্রমেই দুর্বল হতে থাকা অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে ক্ষমতাসীন জোট সরকার চাপের মধ্যেই আছে।

সরকারী খাতে কর্মরত ২০ লাখেরও বেশী কর্মজীবী ধর্মঘটে যোগ দিচ্ছে। ধর্মঘটের কারণ হিসেবে কর্মজীবী সংগঠনগুলো জানিয়েছে, প্রস্তাবিত পেনসন সংস্কার বিলে কর্মজীবীদের তাদের পেনসনের জন্য বাড়তি অর্থ জমা দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হবে আর অবসরের সময়সীমাও বাড়িয়ে দেওয়া হবে।

এদিকে সরকার বলছে, নাগরিকরা আগের চেয়ে দীর্ঘায়ু হয়েছে তাই তাদের কর্মজীবনের সীমা বাড়ানো দরকার আর পেনসন দেওয়ার মতো যথেষ্ট তহবিল নেই বলেই এ খাতে বাড়তি অর্থ নেওয়া দরকার।

ধর্মঘটের কারণে যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যখাত, করখাতের সেবা বন্ধ হয়ে যেতে পারে, পাশাপাশি স্কুলও বন্ধ হয়ে যেতে পারে। সীমান্তরক্ষীরাও ধর্মঘটে যোগ দেয়ায় যুক্তরাজ্যের বিমানবন্দর ও সমুদ্রবন্দরগুলোতেও বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় সোমবার ইউরোপের সবচেয়ে ব্যস্ত বিমানবন্দর হিথ্রোর বিভিন্ন বিমান সংস্থা তাদের বেশ কিছু বিমানসূচী বাতিল করেছে। সরকার যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন দূতাবাস থেকে অনেক কর্মীকে ফিরিয়ে এনেছে ও স্বেচ্ছাসেবী সংগ্রহ করে তাদের দিয়ে সীমান্তরক্ষার কাজ চালিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এবি/সিআর/১২০০ ঘ.