ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

মফেট ফিল্ড, ক্যালিফোর্নিয়া, ডিসেম্বর ০৬ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/রয়টার্স)- পৃথিবীর মতো অপর একটি গ্রহের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা। ছয়শ’ আলোকবর্ষ দূরে কেপলার-২২বি নামের গ্রহটি পৃথিবীর মতোই বাসযোগ্য বলে ধারণা করছেন তারা।

বিশ্বব্রহ্মাণ্ডে পৃথিবীর বাইরে প্রাণের অনুসন্ধান গবেষণায় কেপলার- ২২বি’র আবিষ্কার একটি গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

সোমবার নাসার কেপলার স্পেস টেলিস্কোপ পরিচালনার সাথে জড়িত জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা গ্রহটি আবিষ্কারের ঘোষণা দেন।
কেপলার স্পেস টেলিস্কোপের মাধ্যমেই গ্রহটির সন্ধান পান তারা।

আমাদের সৌরজগতের বাইরে বিভিন্ন তারাকে ঘিরে প্রদক্ষিণরত ৬শ’রও বেশি গ্রহ এ পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া গেছে। এ গ্রহগুলোর মধ্যে উপরিপৃষ্ঠে তরল পানি থাকার মতো সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে কেপলার -২২বি গ্রহটি। তরল পানির উপস্থিতি প্রাণ সৃষ্টির জন্য সবচেয়ে জরুরি।

আয়তনে গ্রহটি পৃথিবীর ২ দশমিক ৪ গুণ বড় ও এর গড় তাপমাত্রা প্রায় ২২ সেন্টিগ্রেড, যা পৃথিবীর নাতিশীতোষ্ণ মণ্ডলের বসন্তকালের তাপমাত্রার মতোই। ওই গ্রহের এই তাপমাত্রার কারণে সেখানে পৃথিবীর মতো প্রাণপ্রাচুর্যের সম্ভাবনার ইঙ্গিত বহন করে।

আমাদের সৌরজগতে পৃথিবীর অবস্থান সূর্য থেকে যে দূরত্বে কেপলার-২২বি গ্রহটি তার সূর্য থেকে এর মাত্র ১৫ শতাংশ কম দূরত্বে অবস্থান করছে। সৌরজগতে পৃথিবীর অবস্থানের এলাকাটি ‘বাসযোগ্য অঞ্চল’ হিসেবে চিহ্নিত। কেপলার-২২বি’র অবস্থানও তার সৌরজগতের বাসযোগ্য অঞ্চলে।

গ্রহটি তার সূর্যকে প্রদক্ষিণে ২৯০ দিন সময় নেয়।

“আমরা পৃথিবীর মতো বাসযোগ্য একটি গ্রহ খুঁজে পেয়েছি,” বলেন গ্রহটির আবিষ্কারক দলের সদস্য নাটালিয়া বাটালহা, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সান জোন্স রাজ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন জ্যোতির্বিজ্ঞানী।

কেপলার- ২২বি গ্রহটি পৃথিবীর মতো কঠিন না নেপচুনের মতো গ্যাসীয় তা এখনো জানা না গেলেও এ বিষয়ে গবেষণা অব্যাহত আছে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এবি/সিআর/১১০০ ঘ.