ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, জানুয়ারি ১১ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- বিএনপিপ্রধান খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশন নিয়োগ নিয়ে রাষ্ট্রপতির সংলাপে যোগ দেবে, যাতে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফেরানোর দাবিই তুলে ধরবে তারা।

মঙ্গলবার রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির আড়াই ঘণ্টার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার।

বুধবার সকাল ১১টায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের সঙ্গে এ সংলাপের জন্য বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মঙ্গলবার সকালে ১২ সদস্যের একটি তালিকা বঙ্গভবনে পাঠান।

রাতে বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে খালেদা জিয়ার বৈঠকের পর রফিকুল ইসলাম মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, “তত্ত্বাবায়ক সরকারের বিষয়টি আমরা রাষ্ট্রপতির কাছে তুলে ধরবো।”

এ টি এম শামসুল হুদা নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ফেব্র“য়ারির মাঝামাঝি সময়ে। আইন অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি এর আগেই নতুন কমিশন নিয়োগ দেবেন।

এ নিয়োগের জন্য গত ২২ ডিসেম্বর থেকে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী ও গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে এই সংলাপ শুরু করেন রাষ্ট্রপতি। গত ২৬ ডিসেম্বর তিনি বিএনপিকে সংলাপের আমন্ত্রণ জানান।

ইতিমধ্যে রাষ্ট্রপতি নয় দিনে বিভিন্ন দলের সঙ্গে সংলাপ করেছেন। বৃহস্পতিবার তার বসার কথা রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে।

বিএনপি নেতারা ইতোমধ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবির কথা রাষ্ট্রপতিকে জানাতেই তারা সংলাপে যাচ্ছেন। দলটি মনে করে, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত না হলে শুধু নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করে কোনো লাভ হবে না।

সরকার গত বছর সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা বিলুপ্ত করার পর থেকেই সমমনাদের নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে আসছে বিএনপি। সর্বশেষ গত ৯ জানুয়ারি চট্টগ্রামের জনসভা থেকে সরকার পতনের জন্য ‘ঢাকা চলো’ কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন বিএনপি চেয়াপার্সন খালেদা জিয়া, যা চূড়ান্ত রূপ পাবে ১২ মার্চ ঢাকায় মহাসমাবেশের মধ্য দিয়ে।

স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ড. আর গনি, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমেদ, এম শামসুল ইসলাম, মাহবুরুর রহমান, এমকে আনোয়ার, জমির উদ্দিন সরকার, আসম হান্নান শাহ, রফিকুল ইসলাম মিয়া, আবদুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসএম/পিডি/জেকে/০৮৪৫ ঘ.