ক্যাটেগরিঃ bdnews24

নরসিংদী, জানুয়ারি ১৫ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- নরসিংদীর পৌর মেয়র লোকমান হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি সালাহউদ্দিন আহমেদ বাচ্চুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক দিনের হেফাজতে পেয়েছে পুলিশ। তিনি টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর ছোটভাই।

সালাউদ্দিন রোববার সকালে নরসিংদীর মুখ্য বিচারিক হাকিম নিতাই চন্দ্র সাহার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

অন্যদিকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতের আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মামনুর রশীদ মণ্ডল।

শুনানি শেষে হাকিম জামিনের আবেদন নাকচ করে সালাউদ্দিনকে এক দিন পুলিশ হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সালাউদ্দিনের সঙ্গে মামলার আরো চার আসামি মনোয়ার হোসেন খান মইন, আমির হোসেন আমু, মামুন ও হিরণ আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

এর মধ্যে আমু ও মামুনকে এক দিনের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে পাঠানো হয়েছে। মইন ও হিরণকে কারাগারে পাঠিয়েছেন হাকিম। তাদের কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের একদল নেতা-কর্মী নিয়ে সকালে আদালতে যান সালাউদ্দিন। তার হয়ে জামিনের আবেদনের শুনানিতে অংশ নেওয়া আইনজীবীদের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতারাও ছিলেন।

মামলার ১৪ আসামির মধ্যে এই নিয়ে ১২ জন গ্রেপ্তার কিংবা আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন। হত্যায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ আরো ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

নরসিংদীর মেয়র ও শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান গত ১ নভেম্বর দলীয় কার্যালয়ে মুখোশধারীদের গুলিতে নিহত হন।

এরপর তার ভাই কামরুজ্জামান কামরুল যে মামলাটি করেন, তার আসামিদের অধিকাংশই আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী।

মন্ত্রী রাজিউদ্দিন রাজু ছাড়াও তার সহকারী একান্ত সচিব মাসুদুর রহমান মুরাদের নামও রয়েছে আসামির তালিকায়। তিনি আদালতে আত্মসমর্পণের পর জামিন পেয়েছেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/এমআই/১১৪০ ঘ.