ক্যাটেগরিঃ bdnews24

নরসিংদী, জানুয়ারি ১৯ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- নিহত মেয়র লোকমান হোসেনের উত্তরসূরির খোঁজে ভোট শুরু হয়েছে নরসিংদী পৌরসভায়।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বৃহস্পতিবার নির্ধারিত সময় সকাল ৮টায় সব কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট শুরু হয়েছে।

বিকাল ৪টা পর্যন্ত ৩১টি কেন্দ্রের ১৯৮টি কক্ষে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ চলবে। মেয়র নির্বাচনে অংশ নেবেন ৭৭ হাজার ৫৮১ জন ভোটার।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মু. আবদুল অদুদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে ওয়েব ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

গোটা পৌরসভায় পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে জানিয়ে নরসিংদীর পুলিশ সুপার (এসপি) খ. মহিদ উদ্দিন বলেন, প্রতিটি কেন্দ্রে ২৪ জন পুলিশ সদস্যের সঙ্গে থাকছে পর্যাপ্ত আনসার সদস্য। এছাড়া প্রায় আড়াইশ’ র‌্যাব সদস্য স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে। থাকবেন এক জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ ১৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

নির্বাচনে ছয় প্রার্থীর এক জন লোকমানের ভাই কামরুজ্জামান কামরুল, যিনি লোকমান হত্যামামলার বাদিও। অন্যদিকে তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তাজ উদ্দিন ভূঁইয়া, যিনি এই হত্যামামলারই আসামি।

নির্বাচনী প্রচারে কামরুজ্জামান যেমন লোকমান হত্যার বিচার দাবিতে ভোটারদের সহানুভূতি চেয়েছেন; তেমনি অন্যদিকে প্রচারে মোন্তাজের বক্তব্য ছিল, লোকমান হত্যামামলায় ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তাকে জড়ানো হয়েছে।

লোকমান হত্যাকাণ্ডের পর স্থানীয় আওয়ামী লীগও মামলার বাদি-বিবাদিতে বিভক্ত হয়ে পড়েছে, স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম হিরু মেয়র পদে কামরুজ্জামানকে সমর্থন দিলেও জেলা সভাপতি মো. আসাদুজ্জামানসহ অধিকাংশ নেতার সমর্থন মোন্তাজের দিকে।

১ নভেম্বর মুখোশধারী সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন নরসিংদী শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান। মেয়র প্রার্থী মোন্তাজ উদ্দিন শহর আওয়ামী লীগেরই সভাপতি।

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত এই পৌরসভার সর্বকনিষ্ঠ মেয়র ছিলেন লোকমান। সরকার দুই বার তাকে শ্রেষ্ঠ মেয়র হিসাবে নির্বাচিত করে স্বর্ণপদক দেয়।

লোকমানের ভাই কামরুজ্জামান কাপ পিরিচ প্রতীক নিয়ে লড়াইয়ে রয়েছেন। মোন্তাজের প্রতীক আনারস।

এছাড়া প্রার্থী রয়েছেন- আমজাদ হোসেন ভূঁইয়া (দেওয়াল ঘড়ি), হাজী আফজাল হোসেন মোল্লা (টেলিফোন), আরিফুল ইসলাম (চশমা) এবং মোসাব্বির আহমেদ নাসির (দোয়াত কলম)।

ইভিএম নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসা বিএনপি স্থানীয় সরকারের এই নির্বাচন বর্জন করছে।

কামরুজ্জামান মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, তিনি লোকমান হত্যার সুষ্ঠু বিচার ও তার অসমাপ্ত কাজ শেষ করার দাবি নিয়ে ভোটারদের মধ্যে প্রচার চালিয়েছেন।

অন্যদিকে মামলার দুই নম্বর আসামি মোন্তাজ বলেন, মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে লোকমানের পরিবার তার বিরুদ্ধে ‘অপপ্রচার’ চালাচ্ছে, তাই ভোটারদের কাছে তুলে ধরেন তিনি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/এমএইচসি/জেকে/০৮০৫ ঘ.