ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, জানুয়ারি ২৫ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- নবম সংসদের দ্বাদশ অধিবেশন শুরু হচ্ছে বুধবার বিকেলে, যা চলবে আগামী ৮ মার্চ পর্যন্ত।

প্রথা অনুযায়ী, বছরের প্রথম অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি সংসদে ভাষণ দেবেন। রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নেবেন সংসদ সদস্যরা।

মঙ্গলবার সংসদ ভবনে কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে এই অধিবেশনের মেয়াদ নির্ধারণ করা হয়। বিশেষ আমন্ত্রণে বৈঠকে অংশ নেওয়া আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ পরে জানান, দ্বাদশ অধিবেশন আগামী ৮ মার্চ পর্যন্ত চলবে।

এই হিসাবে এ অধিবেশনে কার্যদিবস থাকছে ২৭টি। সেক্ষেত্রে বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা এ অধিবেশনে যোগ না দিলেও সদস্যপদ হারানোর ঝুঁকিতে পড়ছেন না।

আইন অনুযায়ী, টানা ৯০ দিন সংসদে অনুপস্থিত থাকলে সদস্যপদ খারিজ হয়ে যায়। বর্তমানে বিরোধী দলের সদস্যরা গড়ে ৫৩ দিন ধরে অনুপস্থিত রয়েছেন। এর আগে ৭৪ কার্যদিবস অনুপস্থিত থাকার পর গত বছরের ১৫ মার্চ সংসদ অধিবেশনে ফিরেছিলেন বিরোধীদলীয় সদস্যরা।

বর্তমান সংসদের গত ১১টি অধিবেশনের মধ্যে ৭টিতেই অনুপস্থিত বিরোধী দলের সদস্যরা। সর্বশেষ ২০১১ সালের ২৪ মার্চ তারা সংসদ অধিবেশনে যোগ দেন।

স্পিকার আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে কার্যউপদেষ্টা কমিটির মঙ্গলবারের বৈঠকে কমিটির সদস্য বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া উপস্থিত ছিলেন না।

সংসদের এ অধিবেশন যে দীর্ঘ হবে, মঙ্গলবার দুপুরেই সে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন প্রধান হুইপ আব্দুস শহীদ। তিনি আশা প্রকাশ করেছিলেন, সংসদ সদস্যপদ টিকিয়ে রাখার জন্য হলেও বিরোধীদলীয় সদস্যরা এই অধিবেশনে ফিরবেন।

তবে বিরোধীদলীয় প্রধান হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক মঙ্গলবার সকালেই বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহালে সংবিধান সংশোধনের বিল সরকারি দল আনলে তারা সংসদ অধিবেশনে যোগ দেবেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এমএইচসি/জেকে/০৯১৫ ঘ.