ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, ফেব্র”য়ারি ১৮ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম) – ধারাবাহিকভাবে ভালো ক্রিকেট খেলতে চান বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। নির্দিষ্ট লক্ষ্যের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, “ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে চাই।”

এবারের বিশ্বকাপের সঙ্গে ২০০৭ সালের আসরের মিল দেখছেন তিনি অনেক দিক দিয়ে। সাকিব বলেন, “সেবারও আমরা ছিলাম জয়ের মধ্যে, এবারও তাই। সব খেলোয়াড়ই আত্মবিশ্বাসী। দলের জয়ে অবদান রাখতে মুখিয়ে আছেন।”

সেই সঙ্গে বেশ অমিলও দেখছেন তিনি। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “২০০৭ সালে আমরা কেমন খেলব কিংবা কি ফল হবে, সে ব্যাপারে অনেকটাই অনিশ্চিত ছিলাম। তবে এবার সবার দৃষ্টিভঙ্গী ইতিবাচক।”

ভারতের বিপক্ষে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী খেলার আগে বাংলাদেশ দলের আত্মবিশ্বাস নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। শনিবার শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দিন-রাতের এই খেলা দিয়ে শুরু হবে দশম বিশ্বকাপের মাঠের লড়াই।

এতো দিন কোনো নির্দিষ্ট লক্ষ্যের কথা না বলে কেবল ভালো খেলার কথা বলে আসছিলেন সাকিব। এবার জানালেন লক্ষ্যের কথা। বললেন, প্রথম পর্বে হারাতে চান ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

তবে একথাও বলেন তিনি, ভারতকে নিয়ে তারা ভাবছেন না। ভাবছেন না নির্দিষ্ট কোনো ব্যাটসম্যানকে নিয়ে। তাদের ভাবনার পুরোটা জুড়ে আছে ভালো ক্রিকেট খেলা।

গত বিশ্বকাপে ভারতকে হারানোর নায়কদের একজন সাকিব এবারের ভারতীয় দলকে আগেরবারের চেয়ে শক্তিশালী হিসেবে বর্ণনা করেন। বলেন, “ওই বিশ্বকাপের পর ভারত অনেক উন্নতি করেছে।”

খেলায় কুয়াশার প্রভাব সম্পর্কে সাকিব বলেন, “আগে কিংবা পরে বল করা গুরুত্বপূর্ণ নয়। গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে খেলার শুরুতে কয়েকটি উইকেট নিয়ে ভারতকে পেছনের পায়ে ঠেলে দেয়া। এমনটা হলে খেলায় দারুণভাবে এগিয়ে যাবো আমরা।”

দুই দলেরই বড় শক্তি স্পিন-মানছেন সাকিবও। তবে শক্তির বিচারে এগিয়ে রাখছেন না কোনো দলকেই।

বাংলাদেশের স্পিনারদের পাশাপাশি ব্যাটসম্যানদের ব্যাপারেও আত্মবিশ্বাসী সাকিব। “আমরা প্রস্তুত, বড় ম্যাচে জ্বলে ওঠার মতো যথেষ্ট অভিজ্ঞ আমরাও।”

পেসার মাশরাফি বিন মুর্তজার অনুপস্থিতি কতটা অনুভব করছেন? এই প্রশ্নের জবাবে সাকিব বলেন, “দলে যারা আছেন, তারা নিজেদের প্রমাণ করেই এসেছেন। আর মাশরাফি যত দিন দলে ছিলেন নিজের সেরাটাই উজাড় করে দিয়েছেন।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এএনএম/টিআর/১৬০৬ ঘ.