ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

ঢাকা, ফেব্র”য়ারি ১৯ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- দুই শতকের ওপর ভর করে বিশ্বকাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী খেলায় বাংলাদেশকে ৩৭১ রানের লক্ষ্য বেঁধে দিয়েছে ভারত।

রাজধানীর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ভারতকে ব্যাট করতে পাঠান। মাঠে নেমেই ঝড় তোলেন ভারতের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার ও বীরেন্দর শেবাগ।

মাত্র ১০ ওভার ৫ বলে ৬৯ রানের শক্ত ভিত্তি গড়ে তোলেন তারা। টেন্ডুলকার ২৮ রান করে রান আউটের শিকার হলেও ভারতের ঝড় থামেনি, বরং চলতেই থাকে। শেষের দিকে ঝড়ের মাত্রা বাড়িয়ে দেন বিরাট কোহলি।

মাত্র ৮৩ বলে ৮টি চার ও দু’টি ছক্কার সাহায্যে হার না মানা ১০০ রান করেন বিরাট কোহলি। বিশ্বকাপে এটি তার প্রথম শতক হলেও বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয়।

খেলার শেষ দিকে (৪৭ ওভার ৩ বলের মাথায়) বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের বলে বোল্ড আউট হন বীরেন্দর শেবাগ। তিনি ভারতের পালায় আউট হওয়া তৃতীয় ব্যাটসম্যান। সাজঘরের পথ ধরার আগে মাত্র ১৪০ বলে ১৭৫ রান করেন তিনি। তার ১৪০ বলের ইনিংসে ১৪টি চার ও ৫টি ছক্কা রয়েছে।

বিশ্বকাপে এটি তার দ্বিতীয় শতক হলেও বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম। এছাড়া একদিনের ক্রিকেট জীবনে এটি তার সর্বোচ্চ রান। এর আগে তার সর্বোচ্চ রান ছিল ১৪৬। এই রান করেন তিনি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০০৯ সালে রাজকোটে।

এর আগে ১৫২ রানের মাথায় দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরার আগে গৌতম গম্ভির করেন ৩৯ বলে ৩৯।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে একটি করে উইকেট নেন শফিউল ইসলাম, সাকিব ও মাহমুদুল্লাহ।

দুপুরে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে সাকিব বলেন, ২৬০ রানের মধ্যে ভারতকে বেঁধে রাখতে চান তিনি। কেননা এর ভেতর যে কোনো রান তাড়া করে জেতার ক্ষমতা তার দলের রয়েছে।

অন্য দিকে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি বলেন, রাতে কুয়াশা পড়বে বলে তিনি প্রথমে বল করতে চেয়েছিলেন।

বাংলাদেশের দুই উদ্বোধনী বোলার শফিউল ও রুবেল হোসেন মোটেও সুবিধা করতে পারেননি। ফলে পঞ্চম ওভারেই শফিউলের বদলে স্পিনার আব্দুর রাজ্জাকের হাতে বল তুলে দেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

এবার নিয়ে নিজের ষষ্ঠ বিশ্বকাপ খেলছেন শচীন টেন্ডুলকার। ফলে পাকিস্তানের জাভেদ মিয়াঁদাদের পাশে এসে দাঁড়ালেন তিনি। মিয়াঁদাদও ছয়বার বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় খেলেছেন।

এছাড়া একদিনের খেলায় সবচেয়ে বেশি ৪৪৫টি ম্যাচ খেলার রেকর্ডও করলেন শচীন। শ্রীলঙ্কার সনাৎ জয়াসুরিয়া খেলেছেন ৪৪৪টি একদিনের ম্যাচ।

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলকে দলে রাখা হয়নি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এএনএম/টিআর/পিডি/১৮৫৬ ঘ.