ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, এপ্রিল ০৫ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে ‘ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের’ বাড়িতে লুটপাট ও নির্যাতনের অভিযোগে বুধবার মধ্যরাতে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে প্রায় এক ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের ছাত্ররা।

শিক্ষার্থীরা হল থেকে মিছিল করে শাহবাগে যায় এবং রাত ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত সড়কে অবস্থান নিয়ে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া এক শিক্ষার্থী জানান, গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার ফতেহপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একটি নাটক মঞ্চস্থ হয়। ওই নাটকে ইসলাম ধর্মকে কটাক্ষ করা হয়েছে- এমন অভিযোগ এনে কয়েকটি ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক সংগঠনের কর্মী-সমর্থকরা স্থানীয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কয়েকটি বাড়িতে লুটপাট চালায় এবং তাদের ওপর নির্যাতন করে।

জগন্নাথ হলের আবাসিক ছাত্র মানিক রক্ষিত বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কিছুদিন আগে চট্টগ্রামের হাটহাজারিতে একই রকম ঘটনা ঘটেছে। এবার ঘটেছে সাতক্ষীরায়। এভাবে বারবার কেন সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালানো হচ্ছে? সরকার কেন ব্যবস্থা নিচ্ছে না?”

আরেক শিক্ষার্থী অনন্ত ভৌমিক অভিযোগ করেন, বারবার সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন হলেও মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান এর কোনো প্রতিবাদ করছেন না।

এসব ঘটনার নিন্দা জানিয়ে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

পুলিশের রমনা জোনের সহকারী কমিশনার এস এম শিবলী নোমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “জগন্নাথ হলের শিক্ষার্থীরা সংখ্যালঘু নির্যতনের প্রতিবাদে রাস্তা অবোরধ করে রাখে। তবে তারা যানবাহন ভাংচুর করেনি।”

সবারই শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ করার অধিকার আছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/জেকে/০৯২০ ঘ.