ক্যাটেগরিঃ bdnews24

সিলেট, এপ্রিল ১৯ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- মধ্যরাতে ‘নিখোঁজ’ হওয়া বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীকে দ্রুত খুঁজে বের করার দাবিতে সিলেটে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে।

স্থানীয় বিএনপির ডাকে এই হরতালে কারণে সিলেট শিক্ষাবোর্ডের বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

স্থানীয় বিএনপির নেতা-কর্মীরা সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বিচ্ছিন্নভাবে রাস্তায় নামলেও কোথাও বড় কোনো গোলোযোগের খবর পাওয়া যায়নি। অলিগলিতে পিকেটিংয়ের কথা শোনা গেলেও শহরের মূল পয়েন্টগুলোতে বিএনপি নেতাকর্মীদের তৎপরতা দেখা যায়নি খুব একটা।

হরতালে নগরীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আম্বরখানা, চৌহাট্টা, কোর্ট পয়েন্ট, জিন্দাবাজার, সিটি পয়েন্টসহ নগরীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

সকালে শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে কিছু রিকশা ও অটোরিকশা চলতে দেখা গেলেও ভারি যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। সিলেট থেকে দূরপাল্লার কোনো বাসও ছেড়ে যায়নি।

হরতালের কারণে অধিকাংশ এলাকায় রাস্তাঘাট ফাঁকা। বেশিরভাগ দোকানপাটও বন্ধ দেখা যায়।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল্লাহ আল আজাদ চৌধুরী বলেন, “এখন পর্যন্ত সব কিছু শান্তিপূর্ণ। নগরবাসীর নিরাপত্তায় আমরা তৎপর আছি। কোথাও বিশৃঙ্খলার খবর এখনো আমরা পাইনি।”

রাজধানীর বনানী থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে মহাখালী এলাকা থেকে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলা সভাপতি ইলিয়াস আলীর প্রাইভেট কারটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে তার স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা বনানী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিতে অভিযোগ করেন, তার স্বামী মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে ‘নিখোঁজ’।

এ খবরে সিলেট বিএনপি নেতাকর্মীরা বুধবার সকাল থেকে প্রায় আট ঘণ্টা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের প্রায় ৩০ কিলোমিটার এলাকা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

সিলেটের সাবেক সাংসদ ইলিয়াসের নিখোঁজ হওয়ার পেছনে সরকারের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাত আছে- এমন অভিযোগ এনে বৃহস্পতিবার সিলেট বিভাগে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডাকে বিএনপি।

সকালে হরতাল শুরুর পর পৌনে ৮টার দিকে সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি এম এ হকের নেতৃত্বে নগরীরতে একটি মৌন মিছিল করে বিএনপির নেতাকর্মীরা। এরপর ৯টায় সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির যৌথ মিছিল বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভপতি দিলদার হোসেন সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আহমদ, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকি, সহ সাধারণ সম্পাদক আজমলবক্ত সাদেক এই মিছিলে অংশ নেন।

এছাড়া সিলেটের ১২ উপজেলাতেও শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল চলছে বলে জানিয়েছেন সিলেটের পুলিশ সুপার শাখাওয়াত হোসেন।

তিনি বলেন, “জেলার কোথাও কোনো অপ্রীতিকার ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/জেকে/০৯৩০ ঘ.