ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, এপ্রিল ২৪ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- এম ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবিতে টানা হরতালের মধ্যে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ে গিয়ে দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের সঙ্গে বৈঠক করে আন্দোলনের বিকল্প পথ বেছে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।

তিনি বিএনপি কার্যালয়ে ঢোকার মুখে পুলিশ তার দলের কয়েকজন সদস্যকে আটক করায় বৈঠক শেষে বের হয়েই তিনি রাস্তার ওপর গামছা বিছিয়ে শুয়ে পড়েছেন।

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের ১১জন নেতা-কর্মীকে পুলিশ আটক করেছে দাবি করে কাদের সিদ্দিকী বলছেন, তাদের ছেড়ে না দেওয়া পর্যন্ত তিনি রাস্তা ছেড়ে উঠবেন না। স্ত্রী নাসরিন সিদ্দিকীও তার পাশেই অবস্থান করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ইলিয়াস আলীর অন্তর্ধান ও হরতালসহ দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য কাদের সিদ্দিকী সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রায় ২০ জন নেতাকর্মী নিয়ে হরতালের মধ্যেই বিএনপি কার্যালয়ে যান। স্ত্রী ও তিনজন জ্যেষ্ঠ নেতাকে নিয়ে তিনি বিএনপি কার্যালয়ের ভেতরে ঢুকে গেলে পুলিশ এসে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে ধরে নিয়ে যায়।

বিএনপি কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে প্রায় আধা ঘণ্টা বৈঠকের পর বেরিয়ে এসেই দলের নির্বাচনী প্রতীক গামছা রাস্তায় বিছিয়ে অবস্থান নেন মুক্তিযোদ্ধা কাদের।

তিনি বলেন, “দেশে এভাবে গণতন্ত্র চলতে পারে না। সরকার অসভ্য।”

একইসঙ্গে বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, “হরতাল না দিয়ে ধর্মঘট দিন, অনশন পালন করে। প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর বাসার সামনে অবস্থান নিন।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসএম/এসআই/জেকে/১২১৫ ঘ.