ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, মে ০৭ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- আদালতের নির্দেশে গুলশানের বিনোদন কেন্দ্র ওয়ান্ডারল্যান্ড ভেঙে ফেলতে শুরু করেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-রাজউক।

সোমবার দুপুরে পুলিশ পাহারায় রাজউকের ম্যাজিস্ট্রেট রোকন-উদ-দৌল্লার নেতৃত্বে পার্কের মূল ফটক ভাঙার কাজ শুরু করে শ্রমিকরা।

রাজউকের আরেক মেজিস্ট্রেট মারুফ হাসান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এটা সিটি কর্পোরেশনের জমি। এখনে ওয়ান্ডারল্যান্ডের এই স্থাপনাকে অবৈধ বলে রায় দিয়েছে উচ্চ আদালত। এ কারণে আমরা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছি।”

অবশ্য ওয়ান্ডারল্যান্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মুস্তাফিজুর রহমান দাবি করেছেন, এই অভিযান শুরুর আগে তাদের নিয়ম অনুযায়ী নোটিস দেওয়া হয়নি।

“আদালত বলেছে, পার্ক স্থানান্তরের জন্য বিকল্প জায়গা দিতে। তারা সেটাও না দিয়ে অন্যায়ভাবে উচ্ছেদ শুরু করেছে”, বলেন তিনি।

গুলশান সেন্ট্রাল পার্কের কিছু অংশ ঢাকা সিটি করপোরেশনের কাছ থেকে ইজারা নিয়ে ১৯৯০ সালে ওয়ান্ডারল্যান্ড চিলড্রেন পার্ক নির্মাণের কাজ শুরু করে মেসার্স ভায়া মিডিয়া নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

কিন্তু আবাসিক এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে পার্ক নির্মাণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এম এ রেজা নামে গুলশানের এক বাসিন্দা ১৯৯৫ সালে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন।

শুনানি শেষে রাজউকের মহা পরিকল্পনায় বাণিজ্যিক পার্কের বিষয়টি না থাকায় ওই ইজারা অবৈধ ঘোষণা করে ওয়ান্ডারল্যান্ডের বরাদ্দ বাতিল করে দেয় হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ছয় মাসের মধ্যে পার্কের যাবতীয় স্থাপনা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এরপর দীর্ঘদিন বিষয়টি ঝুলে থাকার পর সোমবার দুপুরে রোকন-উদ-দৌল্লার নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে রাজউক। এ জন্য সকাল থেকেই সেখানে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

রাজউকের তিনটি বুলডেজার এই উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নিচ্ছে। ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের কর্মীরা মাথায় লাল ফিতা বেঁধে পার্কের দেওয়াল ও অন্যান্য স্থাপনা ভাঙার কাজ করছেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এলএইচ/এমডি/জেকে/১৪১২ ঘ.