ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, মে ১২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- বিশ্বের শীর্ষ একটি জনমত জরিপকারী প্রতিষ্ঠানের জরিপে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাজের ওপর ৭৭ শতাংশ বাংলাদেশির আস্থা রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

জরিপটিতে সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে এশিয়ার নেতাদের মধ্যে প্রথম কাতারেই রয়েছেন দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার পরিচালনাকারী শেখ হাসিনা। তালিকায় তার অবস্থান সপ্তম।
শুক্রবার নিজেদের ওয়েবসাইটে এই জরিপের ফল প্রকাশ করে ওয়াশিংটনভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান গ্যালাপ।

৭৭ শতাংশ শেখ হাসিনার কাজে সন্তুষ্ট হলেও জরিপে অংশ নেওয়া ১৯ শতাংশ তাদের অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে, মন্তব্য করেনি ৪ শতাংশ।

জরিপে শেখ হাসিনা পেছনে ফেলেছেন প্রতিবেশী ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন ফিলিপ কি, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট সুসিলো বামবাং ইউধোইয়োনো, ভিয়েতনামের প্রধানমন্ত্রী নুয়েন তান ডাং, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী জুলিয়া গিলার্ডকেও।

এশিয়ার সবচেয়ে শিল্পোন্নত দেশ জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিকো নোদার অবস্থানও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর পেছনে।

উল্টো অবস্থা পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারির। তালিকায় সর্বশেষ অবস্থানটি তার। দেশটির মাত্র ২০ শতাংশ মানুষ মনে করে জারদারি ঠিক পথে আছেন। অন্যদিকে তার প্রতি অনাস্থা জানিয়েছে ৭৭ শতাংশ মানুষ।

২১টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের কার্যক্রমের ওপর জনগণের মনোভাব নিয়ে জরিপটি করা হয়েছে।

ভারতের ৫৯ শতাংশ মানুষ মনে করে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ঠিক পথে চলছেন। আর প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিকোর প্রতি আস্থা রেখেছে মাত্র ৪৪ শতাংশ জাপানি। প্রধানমন্ত্রী জুলিয়া গিলার্ডের কাজের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ৪৫ শতাংশ মানুষ। আর জন কির প্রতি সমর্থন আছে নিউজিল্যান্ডের ৭২ শতাংশ মানুষের।

এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে জনগণের আস্থা অর্জনের দিক দিয়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন লাওসের প্রেসিডেন্ট চৌমালি সায়াগনাসন। তার দেশের ৯৭ শতাংশ মানুষ মনে করে তিনি সঠিক কাজ করছেন।

এরপরই ক্যাম্বোডিয়ার হুন সেন, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাহিন্দ রাজাপাকসে, সিঙ্গাপুরের লি হিয়েন লুং, ফিলিপাইনের বেনিনো অ্যাকুইনো জুনিয়র এবং মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব তুন রাজ্জাকের অবস্থান।

২০১১ সালের ৫ এপ্রিল থেকে ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে এ জনমত যাচাই করা হয়েছে। কথা বলা হয়েছে প্রতিটি দেশের এক হাজারের মতো প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের সঙ্গে সরাসরি বা টেলিফোনে।

শেখ হাসিনা ২০০৯ সালের শুরুতে দ্বিতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার তিন বছরের মাথায় আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের জনমত জরিপে তার প্রতি এ জনসমর্থন দেখা গেছে।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে ২৩০টিতে জয়ী হয় হাসিনার নেতৃত্বাধীন দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

এর আগে ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এএইচ/এমআই/১৬৪৯ ঘ.