ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

সারাদেশে প্রায় ৬৯ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে তন্মদ্ধে ৩৭ হাজার সরকারি ও ৩২ হাজার বেসরকারি। এবারের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনি পরীক্ষায় পাসের হার ৯৭.২৬ যা গত বছরের চেয়ে ৪.৯২ ভাগ বেশী। পাশের হার বেশি হলেও শিক্ষার গুণগত মান কতটা বৃদ্ধি পেয়েছে সেটাও চিন্তার বিষয়। পাশের হার বাড়লেই যে শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি পাবে তা নিশ্চিত করে বলা যাবে না। কেননা আমাদের শিক্ষা পদ্ধতি অনেকটাই নোট, গাইড ও কোচিং নির্ভর। যার ফলে ছাত্র -ছাত্রীরা মুখস্ত বিদ্যায় অভ্যস্ত হয়ে পরছে। কোচিং সেন্টারের বাছাই করা কিছু প্রশ্নোত্তর কোন ক্রমে গলধঃকরন করে পরীক্ষার খাতায় উগরে দিতে পারলেই হল। এতেকরে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ও শিক্ষার্থীদের অজানাই থেকে যায়। গ্রাম-শহর নির্বিশেষে একই প্রশ্ন অনুসরণ ও একই পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করা হয়। ফলে শহরের সচ্ছল শিক্ষার্থীদের তুলনায় গ্রামের অসচ্ছল শিক্ষার্থীরা সর্বদা পিছিয়েই থাকে। কাজেই নোট, গাইড ও কোচিং সেন্টার বন্ধ করে সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিতে হবে সরকারকেই এবং তা হবে সময়োপযোগী।