ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

 

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার পরিচিতি শুধু চিকচিকে বালুকাভুমি, মন্দির আর চমত্কার সব রিসোর্ট দিয়েই নয়, বিশ্বের সবচেয়ে যুদ্ধ-বিধ্বস্ত এলাকা হিসেবেও এর খ্যাতি রয়েছে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, গত শতকে সবচেয়ে বেশি বোমা পড়েছে যে দেশগুলোতে তারমধ্যে লাওস, কম্বোডিয়া এবং ভিয়েতনাম অন্যতম। ১৯৬৪ থেকে ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত আমেরিকা লাওসে যত গুচ্ছ বোমা মেরেছে, তার এক-তৃতীয়াংশ বোমা বিস্ফোরিত হয় নি, এগুলো সারাদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। অক্সফার্ম ইন্টারন্যাশনালের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ প্রচারণা কার্যক্রমের প্রধান আনা ম্যাকডোনাল্ড লাওসের গ্রামের ভয়ংকর চিত্র তুলে ধরেছেন:

প্লেনে করে আমরা জিয়াং খোয়াং প্রদেশের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে গেলাম। মাঠে জলহস্তী চড়ছে। চারপাশজুড়ে সবুজ ধানক্ষেত। পাহাড়ি গ্রামের কৃষকদের চাষের জমিগুলো আঁকাবাঁকাভাবে ছড়িয়ে রয়েছে। আর আছে বংশ পরস্পরা বসবাস করে আসা কাঠের পাহাড়ি বাড়িগুলো। খুব সুন্দর ছবির মতো একটা গ্রাম। কিন্তু এ ছবিও যুদ্ধের ধ্বংসযজ্ঞ ঢেকে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। গ্রামের মাঠ-ঘাটসহ সর্বত্র ছড়ানো রয়েছে অবিস্ফোরিত বোমাগুলো।

এই অঞ্চলে যখন ভিয়েতনাম যুদ্ধের বিভীষিকা চলছে, তখন থেকেই দক্ষিণপূর্ব এশিয়া যুদ্ধের তাজা ক্ষত বয়ে বেড়াচ্ছে, যার যত্নআত্তির খুব প্রয়োজন ছিল। কিন্তু এর পরিবর্তে ঘটে উল্টোটা। মিয়ানমার থেকে স্বাধীনতা চেয়ে বসে কারেন ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি। স্বাধীনতার দাবিতে তাদের ৬০ বছর ধরে চলা গণযুদ্ধ বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘতম সময় ধরে চলা যুদ্ধ।

…..> বিস্তারিত