ক্যাটেগরিঃ ফিচার পোস্ট আর্কাইভ, সিটিজেন জার্নালিজম

 

আজ (৪ মে ২০১১) সকাল ১১:০০টায় রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে পপুলেশন সার্ভিসেস এন্ড ট্রেনিং সেন্টারের (পিএসটিসি) উদ্যোগে নাগরিক সাংবাদিকতার ওয়েব পোর্টাল ‘নাগরিক কণ্ঠ’ সকলের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। সরকারি সেবার মানোন্নয়নে নাগরিক অংশগ্রহণ বিষয়ে পিএসটিসি একটি কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ইউএনডিপি বাংলাদেশের সহযোগিতায় শুরু হওয়া এই কার্যক্রমের আওতায় তরুণ স্বেচ্ছাসেবকরা নাগরিক সাংবাদিক হিসেবে সরকারি সেবা বিষয়ে সাধারণ মানুষের মতামত-পরামর্শ-অভিযোগ-চাহিদা তুলে ধরছেন। ‘নাগরিক কণ্ঠ’ ওয়েব পোর্টালে (http://www.nagorikkontho.org/portal/) বাংলাদেশের যে কোন নাগরিক সরকারি সেবা বিষয়ে নিজ নিজ মতামত পাঠাতে এবং তথ্য পেতে পারেন।

‘নাগরিক কণ্ঠ’ ওয়েব পোর্টালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে ওয়েব পোর্টাল উদ্বোধন করেছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক সভাপতি এবং স্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলন জাতীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. রশিদ-ই-মাহবুব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান, দৈনিক প্রথম আলো’র উপসম্পাদক, বিশিষ্ট লেখক আনিসুল হক, খেলাঘর-এর সাধারণ সম্পাদক ডা. লেলিন চৌধুরী, লেখক ও মানবাধিকার কর্মী হিলাল ফয়েজী প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন পিএসটিসি’র পরিচালক ড. নিতাই কান্তি দাস। অনুষ্ঠানে পিএসটিসি’র নাগরিক সাংবাদিকতা কার্যক্রম উপস্থাপন করেন পিএসটিসি’র কর্মকর্তা শশাঙ্ক বরণ রায়। ‘নাগরিক কণ্ঠ’ উদ্বোধনী আয়োজনে সাংবাদিক, মানবাধিকার কর্মী, উন্নয়ন কর্মী, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি এবং কর্ম এলাকা থেকে আগত সেবচ্ছাসেবক নাগরিক সাংবাদিকবৃন্দ অংশগ্রহণ করছেন। পিএসটিসি’র নির্বাহী পরিচালক মিলন বিকাশ পাল অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য সকলের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

নাগরিক সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন মাহফুজা ফারহা অতসী, আরমান সিদ্দিকী, লুৎফর রহমান, শামীমা আহমেদ কথা প্রমুখ।

পিএসটিসি’র উদ্যোগে নাগরিক সাংবাকিতার মাধ্যমে সরকারি সেবার মানোন্নয়নের এই কার্যক্রমটি প্রাথমিকভাবে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন, পঞ্চগড় পৌরসভা এবং বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলায় পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়াও দেশের সকল বিভাগীয় শহরসহ মোট ১০টি জেলায় নাগরিক সাংবাদিকতা বিষয় কর্মশালা পরিচালনা করা হচ্ছে। প্রতিটি এলাকার একদল তরুণ স্বেচ্ছাসেবক সরকারি সেবা বিষয়ে স্থানীয় জনগণের মতামত, চাহিদা, পরামর্শ সংগ্রহ করে ওয়েব সাইটে প্রতিবেদন, ছবি, ভিডিও, ব্লগ আকারে পাঠাচ্ছে। এই উদ্যোগটির সাথে সংশ্লিষ্ট এলাকার সেবাদানকারী, নাগরিক সমাজ, জনপ্রতিনিধি এবং গণমাধ্যম কর্মীদেরকে যুক্ত করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে জনগণকে সরকারি সেবা বিষয়ে তথ্য দেয়া হচ্ছে এবং সেবার মানোন্নয়নে নাগরিক অংশগ্রহণ বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

আরও তথ্য এখানে:
http://nagorikkontho.org/portal/qa