ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

সম্প্রতি কেরালা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে, যখন সোমাইয়া নামক এক ২৩ বছরের তরুণীকে যাত্রীবাহী চলন্তট্রেন থেকে ছুড়ে ফেলা হয়, তার আগে তাকে ধর্ষন এবং নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। এই বীভৎস ঘটনা তখন ঘটে যখন তাকে ট্রেনের কামরায় হামলা চালানো হয় এবং এরপর তাকে হত্যা করে ট্রেন থেকে ফেলে দেওয়া হয়। সে সময় ট্রেনের একটা যাত্রী, ট্রেনের ইমার্জেন্সি চেইন টেনে ট্রেনটিকে থামানোর ব্যবস্থা করেনি। নারী এবং তাদের প্রতি সংঘটিত অপরাধের বিষয়ে কেরালার সমাজ যে কত উদাসীন, এই ঘটনা তার এক পরিষ্কার প্রর্দশন।

এই ঘটনায় অভিযুক্ত গোবিন্দস্বামীকে পুলিশ পাকড়াও করে এবং সে বর্তমানে বন্দী। রাজ্যের পুলিশ বিভাগের মতে, গোবিন্দস্বামী এক ভিক্ষুক এবং অতীতে যার অপরাধের রেকর্ড রয়েছে। হটাৎ করেই এক কৌতূহল জনক ঘটনা ঘটতে শুরু করেছে, ব্লগে লেখা শুরু হয় কি ভাবে দিন আনে দিন খায় এমন এক ব্যক্তির সপক্ষে লড়াই করার জন্য একদল আইনজীবীর দাঁড়িয়ে গেছে, পাঁচজন আইনজীবী তার পক্ষ হয়ে মামলা লড়ার ইচ্ছা পোষন করেছে। এই বিষয়ে প্রচার মাধ্যম ততক্ষণ বিস্ময়কর ভাবে নিশ্চুপ ছিল, যতক্ষণ না ভেরুথেরুলা নামক এক ব্লগার একটি ব্লগ পোস্টের মাধ্যমে এই বিষয়ে লেখা শুরু করেন।

ব্লগার এই ঘটনার উপর সেই সব প্রবন্ধ এবং লেখা সংগ্রহ করছে, যেগুলো কেউ খেয়াল করে না এমন বিভাগে ছাপা হয়েছে এবং সে সেগুলোকে সবার সমানে তুলে এনেছে। তার এই লেখার শিরোনাম “দয়া করে সোমাইয়াকে আবার হত্যা করবেন না” (মালয়ালাম ভাষায়)। এই বিষয়ে আজ পর্যন্ত যা যা ঘটেছে, ব্লগার তার বিস্তারিত বর্ণনা প্রদান করেছ।

সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ার জন্য ভিজিট করুন গ্লোবালভয়েসেস