ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ২৯শে ডিসেম্বর জানিয়েছে, সংবিধানের সপ্তম সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া হাইকোর্টের রায়ে বলা হয়েছে, ষড়যন্ত্র ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার জন্য এইচএম এরশাদের বিচার হওয়া উচিত। এ বিষয়ে বিষয়ে যথেষ্ট সাক্ষ্য প্রমাণ আছে কি না, তা সরকার তলিয়ে দেখবে বলে রায়ে প্রত্যাশা করা হয়েছে। গত ২৬ অগাস্ট দেওয়া রায়ে সংবিধানের সপ্তম সংশোধনীকে অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করে হাইকোর্ট। এ সংক্রান্ত হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় বুধবার প্রকাশ হয়েছে। বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেনের বেঞ্চ এ রায়ে স্বাক্ষর করেছেন। রায়ে বলা হয়, ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের কোনো সামরিক শাসন জারির প্রচেষ্টা কেউ না করে তার জন্য অতীতে যারা সামরিক শাসন জারি করেছিলেন, তাদের বিচার হওয়া আবশ্যক। রায়ে আরো বলা হয়, ভবিষ্যতে যেন কেউ সামরিক শাসন জারি না করতে পরে তার জন্য নির্ভুল আইন প্রণয়ন করা উচিত।

এরশাদের শাসনামলে আনা সংবিধানের সপ্তম সংশোধনী বাতিলের পাশাপাশি এরশাদের শাসনকেও সংবিধান পরিপন্থী ও অবৈধ ঘোষণা করা হয়। রায়ে বলা হয়, “আমাদের দেশে প্রথম সামরিক শাসন জারি করেন জেনারেল জিয়াউর রহমান ও খন্দকার মোস্তাক আহমেদ। জিয়া ক্ষমতা গ্রহণের পরে জয় বাংলা স্লোগান পরিবর্তন করে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ করেন। বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ বিমানের নাম পরিবর্তন করেন।”