ক্যাটেগরিঃ আমরা বন্ধু

আমরা বন্ধু ব্লগে শওকত হোসেন মাসুম প্রথম আলোতে প্রকাশিত তার লেখার ফুটনোট হিসাবে কিছু সুপারিশ প্রস্তাব করেছেন। তিনি লিখেছিলেন, “এক বছর ধরে বাজারে দুটি সংকেত দেওয়া হয়েছে। যেমন — বাজারে কারসাজি করলেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে না। ’৯৬-এর ঘটনায় কেউ শাস্তি না পাওয়ায় এই সংকেতটি সব সময়ই জোরালো ছিল। আরেকটি সংকেত হচ্ছে, সূচক পড়লেও যেকোনো উপায়ে তা আবার বাড়ানো হবে। ফলে একধরনের আশ্বস্ততা থেকেই বিনিয়োগ করে গেছেন অনেকে।” শেয়ার বাজারের পতনকে অনিবার্য উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, প্রশ্ন ছিল, পতন কখন হবে এবং কী গতিতে হবে।। তিনি আরো উল্লেখ করেন, “চুয়াত্তরের দুর্ভিক্ষের কারণে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই খাদ্য নিয়ে অতি সতর্ক থাকে। কিন্তু ’৯৬-এর শেয়ার কেলেঙ্কারির ঘটনা থাকা সত্ত্বেও এবার দলটি সরকার গঠন করে শেয়ারবাজার নিয়ে সে রকম সতর্ক ছিল না। ’৯৬-এর ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের একটি বড় অংশ এবারও শেয়ারবাজারে সক্রিয় ছিল। তারা নানাভাবে বাজারকে প্রভাবিত করেছে।”

শওকত হোসেন মাসুম যে সমস্ত সুপারিশ করেছেন, তার মধ্যে অন্যতম হলো, অর্থ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি পদ থেকে আহম মোস্তাফা কামালকে পরিবর্তন, ব্যাংকগুলো শেয়ার বাজার থেকে কত মুনাফা করেছে তার হিসাব প্রকাশ করে তার উপর অতিরিক্ত কর আরোপ করে বেইল আউট এর পরিকল্পনা করা, বিভাগীয় শহরের বাইরে ব্রোকারেজ হাউজের শাখা বন্ধ করা, পুজি বাজারের আয়ের উপর কর আরোপ করা। বিস্তারিত দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।