ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূতকে হত্যার পরিকল্পনার ব্যাপারে ইরানকে অভিযুক্ত করা হয়েছে সে বিষয়টি সারা বিশ্বের ওয়েব সাইট এবং সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় দখল করেছিল। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ দুই ইরানী নাগরিকের বিরুদ্ধে অভিযোগে এনেছে, বিশ্বাস করা হচ্ছে যে তারা মেক্সিকোর একটি মাদক চোরাচালানকারী দলের সদস্যদের সৌদি রাষ্ট্রদূতকে হত্যার জন্য ভাড়া করার চেষ্টা করছিল। ইরান এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ইরানের ব্লগাররা ‘কল্পনার চেয়ে বিস্ময়কর’ এই ঘটনা সম্বন্ধে মতামত প্রদান করেছে যে, এই কাহিনী অন্য যে কোনটার চেয়ে বৈচিত্র্যময়।

ফারইয়াদ ২২ খোরদাদ বলছে [ফার্সী ভাষায়] :

বালাতারিয়ান-এ [ ইরানের একটি লিঙ্ক শেয়ার করা জনপ্রিয় সাইট] অনেকে বলছে যে ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ মিথ্যা এবং কেবল এক কল্পনাপ্রসূত। বিদেশী অনেক বিশেষজ্ঞ এই অভিযোগ সম্বন্ধে বলছে, সেটিও কল্পনাপ্রসূত কারণ ইরানের শাসকদের সম্বন্ধে তাদের কোন পরিষ্কার ধারণা নেই। কিন্তু আমরা, ইরানিরা জানি যে, কারা ইরানকে শাসন করে এবং কারণসমূহ এবং তার মধ্যে যৌক্তিকতার কোন স্থান নেই… তারা দেখাতে চায় যে, যুক্তরাষ্ট্রে ভেতরে তারা অস্থিরতা সৃষ্টি করতে সক্ষম।

আজাদি ও আবাদি লিখেছে [ফার্সী ভাষায়]:

অনেক সময় লেখা খুব কঠিন, কিন্তু অন্তত এই একটা কাজ আমরা করতে পারি।। এই কাহিনীর প্রচার মাধ্যমে প্রচণ্ড জোরালো এক আওয়াজের সৃষ্টি করেছে এবং ডান-পন্থী আমেরিকান নাগরিকরা এখন ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের কথা বলছে। বেশ কিছু বিশেষজ্ঞ আছে যারা প্রচার মাধ্যমে এই কাহিনী নিয়ে কথা বলছে, যারা এমনকি মানচিত্রে এই দেশটির অবস্থান কথায় তা বের করতে পারে না। এখন যদি তারা নিজের মানচিত্রে ইরান কোথায় তা বের করতে পারে না তাহলে স্মার্ট বোম্ব এবং মিসাইল যা করতে পারবে… ইরানের এক নাগরিক হিসাবে আমি বলতে পারি, যুদ্ধ বা ইরান দখল কোনটাই কারো জন্য কোন লাভ বয়ে আনবে না। না ইরানের জন্য, না বিশ্বের বাইরে কোন রাষ্ট্রের জন্য।

…..> বিস্তারিত

_______________
বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ও গ্লোবাল ভয়েসেস অলনাইনের মধ্যে বিদ্যমান চুক্তির আওতায় শেয়ারকৃত।
আপনার কমিউনিটির কোনো সংবাদ শেয়ার করতে চান? জানান আমাদের ফেসবুক গ্রুপে