ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

 

তাইওয়ানের বাৎসরিক তাইওয়ান এলজিবিটি ( লেসবিয়ান, গে, বাই সেক্সুয়াল, ও ট্রান্স জেন্ডার বা পুরুষ ও নারী সমকামী, উভয় লিঙ্গ এবং লিঙ্গ পরিবর্তনকারী) প্রাইড প্যারেড বা তাইওয়ান সমকামী শোভাযাত্রা ২৯ অক্টোবর, ২০১১-এ তাইপেতে অনুষ্ঠিত হয়, যা হচ্ছে এশিয়ার মধ্যে সর্ববৃহৎ সমকামী শোভাযাত্রা।

সাম্য এবং শ্রদ্ধার জন্য তাইওয়ানের সমকামী সম্প্রদায় এক দশক ধরে লড়াই করে আসছে। যদিও প্রতিদিনের জীবনে একটু একটু করে এই হিংসাত্মক মনোভাব কমে আসছে, তারপরেও শিক্ষা এবং আইনী ব্যবস্থায় বৈষম্য রয়ে গেছে।

এই শোভাযাত্রার নিজস্ব ওয়েবসাইট অনুসারে:
A boy holding a board saying ‘My mom is lesbian, and my mom is perfect’. Photo by Coolloud.org (CC-BY-ND-ND)

এক বালক এক পোস্টার ধরে রেখেছে। যেখানে লেখা রয়েছে আমার মা এক সমকামী মহিলা এবং আমার মার কোন ত্রুটি নেই। ছবি কুললাউড.অর্গ-এর (সিসি বাই-এনডি-এনডি)

এক দশক আগে সমকামী কোন মানুষের প্রতি সমকামী বিরোধী দল সরাসরি হিংসাত্মক আচরণ প্রকাশ করত, তার তুলনায় আজকাল তারা বলতে শিখেছে যে “আমরা সমকামী ব্যক্তিকে শ্রদ্ধা করি” এবং তারা উদার হবার ভান করে। কিন্তু এদিকে তারা সমকামী সম্প্রদায়ের মৌলিক নাগরিক অধিকার হরণ করার চেষ্টা কখনো বন্ধ করেনি। এছাড়াও তারা এমনকি সংসদ সদস্য এবং নীতি নির্ধারকদের প্রভাবিত করার জন্য অবৈধ পন্থা গ্রহণ করতে পিছপা হয় না, যা হয়ত আমাদের মূল্যবান গণতান্ত্রিক অর্জনকে ক্ষতিগ্রস্ত করে তুলতে পারে। এই রকম কঠিন এক পরিস্থিতিতে, তাইওয়ানের সমকামী সম্প্রদায় দেশটির সমকামী নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যে তারা যেন সংস্কৃতি এবং সমাজের মাঝে এ ব্যাপারে যে বৈষম্যে তার প্রতি আরো সতর্কতা প্রদর্শন এবং যে ছদ্ম হিংসাত্মক আচরণ জাতীয় সমস্ত সমস্যা রয়েছে তা যেন উন্মোচন করে, এটা এই কারণে করতে হবে, যাতে আমরা আমাদের মানবাধিকারের ক্ষেত্রে শক্তিশালী ভিত্তি গড়ে তুলতে পারি।

২০০৩ সালে এই শোভাযাত্রার শুরু হয়। সে বছরে এতে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ছিল ৫০০ জন। এই অনুষ্ঠান খুব দ্রুত জনপ্রিয় হতে থাকে; যেখানে ২০০৯ সালে ২৫,০০ জন এবং ২০১০ সালে ৩০,০০০ জন নাগরিক এতে অংশগ্রহণ করে।

এবারের বিষয় বস্তু ছিল “সমকামীরা লড়াইয়ে ফিরে এসেছে! বৈষম্য বিদায় হও”। এই বিষয়বস্তুর আওতায় এই শোভাযাত্রা তাইপের কাইদাগ্লেন বুলভার্ড নামক এলাকা থেকে শুরু হয় এবং দুটি সড়কে বিভক্ত হয়ে আবার এটি কাইদাগ্লেন বুলভার্ড-এ ফিরে আসে। এই শোভাযাত্রা অংশগ্রহণকারীরা যৌনতা বিষয়ক ধারণা এবং তারুণ্যকে প্রাধান্য দেওয়া, যৌন শিক্ষার প্রয়োগ, পুরুষ সমকামী বিবাহের স্বীকৃতি এবং যৌন কর্মীদের প্রতি যে অপরাধমূলক মনোভাব তা দুর করে তাদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের দাবী জানায়।

…….>বিস্তারিত

_______________
বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ও গ্লোবাল ভয়েসেস অলনাইনের মধ্যে বিদ্যমান চুক্তির আওতায় শেয়ারকৃত।
আপনার কমিউনিটির কোনো সংবাদ শেয়ার করতে চান? জানান আমাদের ফেসবুক গ্রুপে