ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

মিশরীয় ব্লগার মাইকেল নাবিল সানাদ, যে কিনা ২১৬ দিন ধরে কারাগারে বন্দী এবং ৭১ দিন ধরে অনশন পালন করছে, আজ সে সামরিক আদালতে তার বিচারের বিষয়টি প্রত্যাখান করেছে। মিশরের রাষ্ট্রপতি পদ থেকে হোসনি মুবারক-এর পদত্যাগ পরবর্তী সময়ে তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং নিজের ব্লগে লেখা প্রকাশের দায়ে তাকে এপ্রিল মাসে তিন বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

তার বিরুদ্ধে সামরিক বাহিনীকে অপমান এবং ব্লগে ভূয়া তথ্য ও জন নিরাপত্তার জন্য ক্ষতিকর তথ্য প্রকাশ করার অভিযোগ করা হয়। গত মাসে সর্বোচ্চ সামরিক আপীল আদালত তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ খারিজ করে, কিন্তু তারে তাকে আটকে রাখে, সে সময় সে অনশন ধর্মঘট শুরু করে, এই অবস্থায় কতৃপক্ষ তাকে মানসিক হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

জেলখানায় ফিরে আসার পর সানাদ তার অনশন ধর্মঘট এবং সামরিক আদালতে নিজের বিচার ব্যবস্থার বিরোধীতা করা জারী রাখে, ব্লগার আলা আব্দে এল ফাত্তাহ তার মত একই অবস্থান গ্রহণ করে। ব্লগার ফাত্তাহকে সামরিক আইনজীবীর সামনে প্রশ্নোত্তরের প্রদান করতে অস্বীকার করার কারণে, সোমবার (৩০ অক্টোবর) তাকে সামরিক আদালত ১৫ দিনের জন্য কারাদণ্ড প্রদান করে। সে এই আদালতের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করেছে।

সানাদের একটি স্টেনসিল বা ছাপচিত্র, যেখানে সে তার নিজের মুক্তির দাবী জানাচ্ছে, ছবি হোসাম এলহামালাওয়ি-এর।

সানাদের মামলার শুনানি ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে, যা সামাজিক প্রচার মাধ্যম সমূহে এক ক্ষোভের সঞ্চার করেছে। তার এক দল সমর্থক, যারা আদালতের বাইরে অবস্থান করছিল, তারা সামরিক আদালতের বিরুদ্ধে স্লোগান প্রদান করে।

টুইটারে সাংবাদিক এ্যাডাম মাকারি ঘোষণা প্রদান করে যে:

@এ্যাডামমাকারি: #তাজাসংবাদ:#১৩ নভেম্বর তারিখ পর্যন্ত #মাইকেলনাবিলের মামলার বিচার স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। চার জন প্রত্যক্ষদর্শীকে সাক্ষ্য প্রদানের জন্য ডাকা হয়েছে#মিশর।

দি বিগ ফারাও ব্যাখ্যা করছে:

@দিবিগফারাও:আইনজীবীরা পরামর্শ প্রদান করেছে যে #মাইকেলনাবিল যেন তার এসসিএএফ (সামরিক শাসক পরিষদ) বিরোধী ব্লগ পোস্ট-এর জন্য ক্ষমা চায়। সে ক্ষমা চাইতে অস্বীকার করেছে এবং একই সাথে সামরিক আদালতের বৈধতা মেনে নিতে অস্বীকার করেছে।

……………>বিস্তারিত
_______________
বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ও গ্লোবাল ভয়েসেস অলনাইনের মধ্যে বিদ্যমান চুক্তির আওতায় শেয়ারকৃত।
আপনার কমিউনিটির কোনো সংবাদ শেয়ার করতে চান? জানান আমাদের ফেসবুক গ্রুপে