ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

 

ধারণা করা হচ্ছে প্রায় ১০০,০০০-এর বেশী জনতা এখন তাহরির স্কোয়ারে অবস্থান করেছে। একই সাথে পুলিশ এবং সামরিক বাহিনী বিক্ষোভকারীদের সাথে সংঘর্ষ চালিয়ে যাচ্ছে, যে সমস্ত বিক্ষোভকারীরা মিশরের সামরিক শাসনের শাসনের আহ্বান জানাচ্ছে। গত শুক্রবার থেকে বিক্ষোভকারীরা দেশটির সরকারী সংস্থায় কর্মরত বন্দুকধারীদের সাথে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে এবং এখন তারা এখানে অবস্থান করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, যারা তাদের দাবী পুরণ না হওয়া পর্যন্ত সেই স্কোয়ার থেকে সরে যাবে না। বিভিন্ন সংবাদে পাওয়া খবর অনুসারে ৩৫ জনের মত নাগরিকের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে।

বিক্ষোভকারীদের প্রধান দাবী ছিল, দেশটির শাসন কার্য সর্বোচ্চ সামরিক পরিষদকে (সুপ্রিম কাউন্সিল অফ আর্মড ফোর্সেস বা এসসিএএফ) এক বেসামরিক সরকারে কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। গত ফেব্রুয়ারীতে রাষ্ট্রপতি পদ থেকে হোসনী মুবারকের পদচ্যুতির পর দেশটির সামরিক বাহিনী নিজেই দেশটির অস্থায়ী শাসক রুপে আবির্ভুত হয়।

এনবিসি-এর সাংবাদিক রিচার্ড এঞ্জেল টুইট করেছেন:

@রিচার্ডএঞ্জেলএনবিসি: #ইজিপ্ট। সম্ভবত ১০০,০০০-এর মত জনতা এখন তাহরিরে অবস্থান করছে। বড় বড় তাবু এখন তাদের আশ্রয় কেন্দ্র

সংযুক্ত আরব আমিরাতের টিভি চ্যানেল আল জাজিরা মুবাশ্বের-এর একটি ছবি আপলোড করেছে। এই ছবি তাহরিরে অবস্থান করা জনতা পরিমাণকে তুলে ধরছে:

@সুলতানআলকাশেমী: ঠিক এই মূহূর্তে তাহরির স্কোয়ার- কায়রোর স্থানীয় সময় সোমবার, রাত ১০.৪০ মিনিট।

………..>বিস্তারিত