ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

পাকিস্তানী অভিনেত্রী বীনা মালিক সব সময় বিতর্কের রাণী হয়ে থাকেন। ভারত এবং পাকিস্তানের উভয় দেশে তার সমর্থক এবং শত্রুদের কেউই বিগ বস নামক টেলিভিশন রিয়ালিটি শো-তে তার অংশগ্রহণের কথা এবং ডানপন্থী এক পাকিস্তানী উপস্থাপক এবং ইসলামিক পণ্ডিত –এর সাথে এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে তার খোলামেলা এবং সাহসী আলোচনার কথা ভুলবে না।

এইবার বীনা আরেক বিতর্ককে উসকে দেয়, যখন এফএইচএম ইন্ডিয়া নামক ভারতের এক ছেলেদের লাইফস্টাইল পত্রিকার প্রচ্ছদে তার নগ্ন ছবি ছাপা হয়। এফএইচএম ইন্ডিয়ার ডিসেম্বর সংখ্যার শিরোনাম “এবার আসিফ, বার্গাস এবং কাজের জন্য ভিসা পাওয়ার বিষয়ে পাকিস্তানী ডাব্লিউ এম ডি ( গণবিধ্বংসী অস্ত্র) বীনা মালিক”। প্রচ্ছদের ছবিতে বীনা মালিকের বাহুর দিকে একটি তীর চিহ্ন রয়েছে যা তার হাত আঁকা আইএসআই-এর একটা ট্যাটুর দিকে নির্দেশ করছে, এর তীর চিহ্নের সাথে লেখা রয়েছে “ বিশ্বের শেষ পর্যন্ত হলেও যে হাত পৌঁছাতে সক্ষম” ।আইএস আইএসআই হচ্ছে পাকিস্তানের বিখ্যাত গোয়েন্দা সংস্থা।

হাতে আইএসাই-এর ট্যাটু নিয়ে বীনা ছবি তোলায়, ভারত এবং পাকিস্তানের ডান, বাম এবং মধ্যপন্থীরা ব্যাপক প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন করেছে। যেমনটা ধারণা করা হয়েছিল, বীনা মালিক সাথে সাথে নগ্ন হয়ে ছবি তোলার বিষয়টি অস্বীকার করে। পরে সে এইফএইচএম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে ছবি বিকৃত করে উপস্থাপন করার অভিযোগে ১০০ মিলিয়ন পাকিস্তানী রুপী ক্ষতিপুরণ হিসেবে দাবি করে মামলা করে।

পাকিস্তানী প্রচার মাধ্যম এই ছবিটাকে একটা সম্পাদিত ছবি হিসাবে ঘোষণা দিয়েছে। পাকিস্তানের প্রায় সকল প্রধান ইংরেজি দৈনিক , সেই প্রচ্ছদের এই ছবির একটি সেন্সরশীপ (খানিকটা ঢেকে) সংস্করণ প্রকাশ করেছে। কোন ধরনের প্রমাণ ছাড়া পাকিস্তানের এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এই ছবিটিকে ভুয়া এবং বীনা মালিকের এক প্রচারণা কৌশল বলে উল্লেখ করেছে।

….>বিস্তারিত