ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

 

কেনিয়ার সামরিক বাহিনী সোমালিয়া গিয়ে সেখানকার বিদ্রোহী গ্রুপকে দমন করার যে অভিযান পরিচালনা করছে, তাকে তারা “অপারেশন লিন্ডা নিশ” (সোওয়াহিলি ভাষায় –এর নাম “ দেশ রক্ষা অভিযান”) অভিহিত করছে। এখন এই অভিযান টুইটার যুদ্ধে পরিণত হয়েছে। এই ঘটনার সূত্রপাত ঘটে তখন, যখন এই অভিযানের মুখপাত্র মেজর ই চিরচির, তার টুইটারে একাউন্ট @মেজরইচিরচির,এ, একটি পুরোনো ছবি পোস্ট করেন, এই ছবি দেখিয়ে দাবী করা হয় যে, আল শাবাবের এক অনুসারীকে (রিক্রুট) ভিন্নমত প্রকাশ করায়, পাথর ছুঁড়ে তাঁর একদল সহকর্মীরা হত্যা করেছে। মুছে ফেলা এই টুইটের ছবিটি এখন আপনারা এখানে দেখতে পাবেন।

পরবর্তীতে এটি জানা যায় যে, আসলে ২০০৯ সালে এক সোমালীয় সাংবাদিক এই ছবিটি তুলেছিল এবং তা আদতে কেনিয়ার কোন আল শাবাবের দ্বারা নিয়োগপ্রাপ্ত ব্যক্তির ছবি ছিল না। কেনিয়ার সামরিক বাহিনীর দায়িত্বশীলতার অর্থ নিজেদের দায়িত্বশীলতার প্রমান দিয়ে বুঝিয়ে দেয় এবং যা একটি টুইটে তারা এক বিবৃতি হিসেবে প্রদান করে:

@মেজরইচিরচির: #পিকচারপোস্টিং একটি পুরোনো ছবি প্রকাশ করার দায়িত্ব আমি নিজে গ্রহণ করছি। কিন্তু মঙ্গলবারে এক হত্যার ঘটনা ঘটেছে। যা অনেকটা শুক্রবারের মত।

@মেজরইচিরচির-এর টুইটের প্রতিক্রিয়ায়, @সেলফমেডআবদি প্রশ্ন করেছে:

@সেলফমেডআবদি: এখন কি আর আমরা আপনার কথা বিশ্বাস করব?

@দানমানুএফসি লিখেছে:

@দানমানুএফসি:আপনার প্রদান করা তাজা সংবাদের উপর আস্থা হারিয়ে ফেলছি।

@কেইথেম্বে বলছে

@কেইথেম্বে:@মেজরইচিরচির #পিকচার পোস্টিং, এটা বেদনাদায়ক, কিন্তু দয়া করে পুরোনো ছবি পোস্ট করা বন্ধ করুন।

……>বিস্তারিত