ক্যাটেগরিঃ গ্লোবাল ভয়েসেস

 

“ফটোগ্রাফি আমার নিঃশ্বাসে। ফটোগ্রাফি ছাড়া আমার কোন অস্তিত্ব নেই”-জিএমবি আকাশ

সেই দিনগুলো এখন অতীত যে দিনগুলোতে আন্তর্জাতিক প্রচার মাধ্যম নিয়মিত ভাবে বাংলাদেশের কেবল রাজনৈতিক সংঘর্ষ বা প্রকৃতিক বিপর্যয়ের ছবি প্রকাশ পেত। এর নতুন এই অবস্থানের জন্য বাংলাদেশের কয়েকজন তরুণ প্রতিভাবান অপেশাদার এবং পেশাদার ফটোগ্রাফারকে ধন্যবাদ, যাদের কারণে আপনারা বাংলাদেশের অনলাইনে হাজার হাজার ছবি দেখতে পাবেন, বিশেষ করে ছবি প্রদর্শনীর সাইট ফ্লিকার এবং পিকাসোতে। এই সমস্ত ছবি বাংলাদেশের অন্য সব দিক তুলে ধরছে। এছাড়াও বাংলাদেশে বেশ কয়েকজন ফোটোব্লগার উঠে এসেছে যারা, তাদের কাজ এবং ছবি রচনা সবার সামনে তুলে ধরছে।

আমি আপনাদের এ রকমই একজন ফোটগ্রাফার এবং ব্লগারএর কাজ সম্বন্ধে পরিচয় করিয়ে দেব, যিনি ছবির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের এক উন্নত ধারণা তৈরি করেছেন। জিএমবি আকাশের ছবির প্রতি আগ্রহ শুরু হয় ১৯৯৬ সালে। তিনি রাজধানী ঢাকায় ওয়ার্ল্ড প্রেস ফোটগ্রাফির তিন বছরের এক সেমিনারের অংশ নেন এবং ঢাকার সাউথ এশিয়ান ফটোগ্রাফি ইনিস্টিটিউট, যার নাম পাঠশালা, সেখান থেকে গ্রাজুয়েশন করেন।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তিনি প্রায় ৪০ টির মত আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেছেন এবং তার কাজ ৫০টির মত আন্তর্জাতিক সংবাদ এবং প্রচার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি ওয়ার্ল্ড প্রেস ফোটো পুরস্কার (২০০৬) এবং ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল ফটোগ্রাফ অফ দি ইয়ার পুরস্কার (২০০৯)। তার সম্বন্ধে আরো জানতে চাইলে টিফিনবক্সে প্রদান করা তার সাক্ষাৎকার পড়তে পারেন।

…..>বিস্তারিত