ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

 

প্রিয় ব্লগার,

গৌরবময় বিজয় মাসের শুভেচ্ছা নিন। আসছে ১৯শে ডিসেম্বর, সোমবার, ২০১১, বিকেল ৫টায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৩য় বাংলা ব্লগ দিবস। উক্ত অনুষ্ঠানে আপনাদের সবাইকে আন্তরিক আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

ব্লগিং এর শক্তি ও সম্ভাবনাকে আরো নিবিড়ভাবে বিস্তৃতির জন্য বিগত দুই বছর যাবৎ বাংলা ব্লগ দিবস পালিত হয়েছে। বিজয়ের মাস ডিসেম্বর বাংলা ব্লগিং এর জন্য ঐতিহাসিক গুরুত্ব বহন করে। ২০০৫ সালের এ মাসে বাংলা কমিউনিটি ব্লগের যাত্রা শুরু হয়। সে অবদান ও ঐতিহাসিক প্রেক্ষিতকে সামনে রেখে ২০০৯ সালের ১৯শে ডিসেম্বর প্রথমবারের মত পালিত হয় বাংলা ব্লগ দিবস। বিভিন্ন ব্লগ প্ল্যাটফর্মের সাথে পরিচয়, ব্লগারদের পারস্পরিক যোগাযোগ বৃদ্ধি ও ব্লগের সাথে সাধারণ মানুষের পরিচয় করিয়ে দিতে দিবসটি ইতিমধ্যে ভূমিকা রাখতে শুরু করেছে। এবছর ১৯শে ডিসেম্বর পালিত হচ্ছে ৩য় বাংলা ব্লগ দিবস।

এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘গণজাগরণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও সাইবার আইন’।

*********************************
অনুষ্ঠানস্থল: পাবলিক লাইব্রেরি, সম্মেলন কক্ষ, নীচ তলা
সময়: বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।
*********************************

উদযাপনে শামিল ১৩টি কমিউনিটি প্ল্যাটফর্ম:

১. উন্মোচন
২. একুশে ব্লগ
৩. প্রজন্ম ফোরাম
৪. কমজগত ব্লগ
৫. মুক্ত ব্লগ
৬. প্রথমআলো ব্লগ
৭. বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগ
৮. প্রিয় ব্লগ
৯. টেকটিউনস ব্লগ
১০. দৃষ্টিপাত
১১. বাংলানিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগ (ব্লগ সাইট নির্মানাধীন )
১২. ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র
১৩. সামহোয়্যারইন…ব্লগ

এবারের অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেনঃ
১. অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ
২. ডঃ আনিসুজ্জামান, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ
৩. জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম খান, প্রধান মন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ এবং জাতীয় প্রকল্প পরিচালক, এটুআই প্রোগ্রাম
৪. অধ্যাপক গোলাম রহমান, সামাজিক গণযোগাযোগ বিশেষজ্ঞ
৫. জনাব আনীর চৌধুরী, পলিসি উপদেষ্টা, এক্সেস টু ইনফরমেশন প্রোগ্রাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়
৬. জনাব আসিফ সালেহ, পরিচালক কমিউনিকেশন এবং প্রধান, সামাজিক উদ্ভাবন কেন্দ্র
৭. জনাব জাকারিয়া স্বপন, প্রতিষ্ঠাতা ও সি.ই.ও., প্রিয়.কম

আয়োজনটি সম্পূর্ণ উন্মুক্ত। প্রয়োজন নেই কোন নিবন্ধনের! অনুষ্ঠানে ব্লগাররাই সঞ্চালক, বক্তা এবং অতিথি। এছাড়া বাংলা ব্লগ দিবস অনলাইনের সকল বাংলা ব্লগ ও কমিউনিটি সাইটের যোগদানের জন্য উন্মুক্ত।

অনলাইনে/অফলাইনে যুদ্ধাপরাধের দোসর গোষ্ঠী এ আয়োজনে সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ।

এই অনষ্ঠানে বিভিন্ন কমিউনিটি প্ল্যাটফর্ম একটি নির্ধারিত সময় জুড়ে তাদের নিজ নিজ ব্লগের বৈশিষ্ট্য ও অর্জন উপস্থাপন করবে এবং ব্লগারদের উল্লেখযোগ্য অবদানের স্বীকৃতি দেবে। বাংলা কমিউনিটির সাথে যুক্ত ১ লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি ব্লগার। তাঁরা অনেক খবরকে ব্লগের মাধ্যমেই প্রথমে প্রকাশ করেছেন। সমাজের অনেক অন্ধকার দিক, অচেতন জায়গার কথা যা প্রথাগত মিডিয়া তুলে ধরতে দ্বিধা করেছে, তা কখনো নিরপেক্ষ বক্তা অথবা কখনো সিটিজেন জার্নালিজম এর চেতনায় ব্লগে প্রকাশিত হয়েছে। এই আয়োজনে সে সবের স্বীকৃতি থাকবে।

বাংলাদেশের সাইবার পরিসরে ব্লগের ভূমিকা অগ্রগণ্য। আমরা আশা করছি এই অনুষ্ঠান হয়ে উঠবে ব্লগার ও নীতি নির্ধারক পর্যায়ের ব্যক্তিদের একটি মিলন মেলা। যেখানে থাকবে অনলাইনে যুদ্ধাপরাধের পক্ষের তৎপরতা নিষিদ্ধসহ সকল বাক স্বাধীনতা ও গণজাগরণের নিশ্চয়তার কথা। এভাবেই পলিসি এবং সাইবার আইনের পরিকাঠামো নির্মাণে উভয় পক্ষের এই যোগাযোগ অর্থবহ হয়ে উঠবে।

আপনাদের স্বর্তস্ফূর্ত উপস্থিতি একান্তভাবে কামনা করা হচ্ছে। [১৯ ডিসেম্বর ৩য় বাংলা ব্লগ দিবস উদযাপন সম্পর্কিত ফেসবুক পাতা দেখতে ক্লিক করুন]

ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা।

ব্লগ টিম
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম