ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

 

আজ সকালে বাসা থেকে বেরুতেই মনটা কেমন যেনো হয়ে গেলো…এই অনুভূতির কোন নাম নেই, তাই এর নাম দিয়েছি ’কেমন যেনো’…আকাশ জুড়ে ধূসর কালো মেঘ…মনে হচ্ছিল এক্ষুনি বৃষ্টি নামবে…তার সঙ্গে একটু হাওয়াও বইছিলো…দমকা হাওয়ায় গাছের মরা পাতাগুলো সব ঝরে পড়ছিলো আমার বাড়ির সামনের রাস্তায়…

এয়ারপোর্ট রোডে গাড়ি উঠতেই দেখি এলাহী কারবার…পুরো রাস্তা জুড়েই মরা পাতাদের দাপাদাপি…দ্রুত চলে যাওয়া গাড়িগুলোর চাকার ঘষায় পাতাগুলো এমনভাবে উড়ছিলো, গ‍াড়ির বন্ধ জানালার ওপাশ থেকে মনে হচ্ছিল বাইরে সত্তর কিলোমিটার বেগে ঝড় বইছে…

পাতার উড়াউড়ি দেখতে দেখতেই ৯৭ সালের এক দুপুরের কথা মনে পড়লো…কলেজ ছুটি হয়েছে অনেকক্ষন আগে…ক্যাম্পাস পুরোই ফাঁকা…আমি কলেজের পীচ ঢালা পথ ধরে একা হেঁটে হেঁটে ফিরছি হঠাৎ করেই বলা নেই কওয়া নেই কোথা থেকে দমকা হাওয়া ধেয়ে এলাে…রাস্তার দুপাশের গাছগুলোর মরা পাতা ভীষন বেগে ঝরে আমাকে একরকম প্রায় ঢেকেই দিলো…

এই ঘটনার কদিন আগেই ইয়াহু ম্যাসেঞ্জারে এক প্রবাসী বন্ধু বলছিলো, আমাদের ওখানে (কানাডায়) এখন পাতা ঝরার দিন চলছে…গাছের মরা পাতাগুলো খুব দারুন করে ঝরে…সেই প্রবাসী বন্ধুর আলাপে দারুন পুলকিত আমি কলেজের একা রাস্তায় পাতা ঝরা দেখে ভাবছিলাম আমিও কানাডাতেই অাছি…কলেজটা পেরুলেই তো ওখানে পাড়ি জমাবো…তখন দেখবো কোন দেশের পাতা ঝরাটা বেশি সুন্দর…

সময় গড়িয়েছে…পাতাও ঝরছে অনেক…তবে কলেজ পেরুনোর আগেই কানাডা যাওয়ার ইচ্ছে মরে ভূত…সব বন্ধুরা পাড়ি জমালে‍া ইউকে-তে…নানা করনে একমাত্র আমিই রয়ে গেলাম (আল্লাহর অশেষ রহমত যে যাওয়া হয়নি) এই দেশে…সবই হলো কিন্তু ওই পাতা ঝরাটা আর দেখা হলো না…

আজ অনেকদিন পর আবার সেই উখাল পাখাল করা পাতার ঝরার দৃশ্য মনে করিয়ে দিলো পুরনো সেই ইচ্ছের কথা…কিছু কিছু ইচ্ছের গায়ে হাত বোলাতেও দারুন আরাম লাগে…:-)