ক্যাটেগরিঃ দিবস প্রসঙ্গ

 

আল্লাহ  রাসুলকে নিয়ে কি কটুক্তি করা ঠিক? আজ দুপুরের ঘটনা…যােহরের নামাজ পড়তে অফিসের ৩ তলা থেকে ৪ তলায় গিয়েছি। জামাত শুরু হতে বাকি আরো ২-৩ মিনিট। অফিসের মাত্র ৪-৫ জন মিলে জামাতে নামাজ পড়ি। জামাতের দেরি দেখে ভাবলাম মার্চ মাসের ওয়েবের ডুডল ডিজাইনের জন্য ‌একটু দিক নির্দেশনা দিয়ে যাই আর্টিিস্টদের। রুমে ঢু‍ুকেই কথাগুলাে কানে এলো। তিন ডিজাইনার বেশ তর্ক জুড়েছে ব্লগার অভিজিৎ হত্যাকাণ্ড নিয়ে।

এক ডিজাইনার দেখলাম ইনিয়ে-বিনিয়ে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করছে, ’অভিজিতকে যে কারনে হত্যা করা হয়েছে তা ঠিকই আছে’…আমি অবাক হয়ে লক্ষ্য করলাম, যে ছেলেটি এই ভয়াবহ যুক্তিটি প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করছে তাকে আমি একটি দিনও দেখিনি অফিসে নামাজ পড়তে। অথচ ঠিক তার রুমের সামনেই প্রতিদিন দুইবেলা জামাত হয়। এই ছেলে জুম্মার নামাজ পড়ে কী না তাতেও আমার ঘোর সন্দেহ আছে। অথচ আল্লাহ-রাসুল (সা.) নিয়ে কী তার প্রেম!
অামি নিশ্চিত হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর নাম মুখে উচ্চারণ করলে তার সঙ্গে সঙ্গে যে (সা.) বলাটা ইসলামের বাধ্যতামূলক শিষ্টাচার তাও জানেনা এই অর্বাচীন যুবক, অথচ কী অবলীলায় সে একটি নৃশংসতম হত্যাকাণ্ডকে সমর্থন করছে।

আমি বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ না, মহান দেশপ্রেমিকদের তালিকাতেও পড়ি না, তবে দেশজুড়ে এ ধরনের রাজাকারমনা আর তথাকথিত ইসলামিক প্রেমিকদের অস্তিত্ব দেখে শঙ্কা হয়, সত্যিই কী মহাদুর্যোগেই না  পড়েতে যাচ্ছে আমাদের দেশ আর আমার শান্তির ধর্ম ইসলাম!