ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

বিশ্বজিৎ এর মতই ক্ষত-বিক্ষত আমাদের বর্তমান গণতন্ত্রের অবস্থা। তাকে নিয়ে শুরু হয়েছে নোংরা রাজনীতি। এ বলে ও আমাদের লোক, সে বলে ও আমাদের লোক। কি জঘন্য আমাদের রাজনীতি, দেখেছেন। থু… । কত দূর্বল আমাদের আইন আর প্রশাসন। বিশ্বজিৎকে মারছে আর সবাই সার্কাস দেখছে। সবাই সবাইকে দোষারোপ করছে। হায়রে.. বিশ্বজিৎ এর ঘরের কথা একটু চিন্তা করুন। পত্রিকায় বিশ্বজিৎ এর ছবি দেখে যার চোখে পানি আসেনি সে কোন মানুষের বাচ্চা হতে পারে না। তবে অনেকের চোখে আসেনি। কারন আমাদের সমাজে দেখতে মানুষের মত হলেও অনেক আজব জানোয়ারের বাচ্চা ঘোরে। নতুবা এমন ঘটনা কি করে ঘটে?

একটু চিন্তা করে দেখুন, রাজনৈতিক নেতারা কিন্তু বিলাসী জীবনযাপন করে। আরামে খায় আর ঘুমায়। মাঝে মাঝে ব্যায়ায় করতে রাজপথে নামে। তাদের কাজ হল কোনরকম একটা কর্মসূচী দেওয়া আর অপর পক্ষের কাজ হল ঐ কর্মসূচী বানচাল করা। বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে আ.লীগের হরতাল আর আ.লীগ ক্ষমতায় থাকলে বিএনপির হরতাল। এই যে হরতাল , কি এসেছে এই হরতাল থেকে? গতবার তো এসেছিল জরুরি অবস্থা। এই যে জান-মালের ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে, এগুলো তো আমার দেশেরই সম্পদ। পাঠার বলি হচ্ছে সাধারন মানুষ। …আমি আসলে পাগল হয়ে গেছি, কাদের কি বুঝাচ্ছি ?

যাই হোক, বিশ্বজিৎ ভাই তোমার জন্য আমরা কিছুই করতে পারলাম না। তবে তোমার হয়ে অভিশাপ দিচ্ছি বাংলাদেশের সকল রাজনীতিবিদদের- ওরা কেউ শান্তিতে মরতে পারবে না। ওদেরও অপমৃত্যু হবে। আমরা কত অভাগা এই দেশে, বিচার দেয়ার মত কেউ নেই আর করার মত কেউ নেই। আমরা তো সাধারন মানুষ তাই আল্লাহ/ভগবানের কাছেই বিচার দিলাম। তুমি তো ভাই মরে গিয়ে বেচে গেলে। সামনে কার পালা কে জানে…