ক্যাটেগরিঃ ব্লগ

 

কথায় আছে –মানিকে মানিক চেনে, এখন দেখছি চোর , বাটপার বা মামলাবাজ সম্পর্কেও একই প্রবাদ খাটে । একজন ধুরন্ধুর মামলাবাজ , প্রশাসনের কলঙ্ক ,যিনি আবার সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুসারে সংসদ সদস্য হিসেবে থাকার অযোগ্য তার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব । আবারো বলতে হচ্ছে – আসলেই সেলুকাস! আমাদের রাজনীতি । চোরের মায়ের সব সময় বড় গলা । সরকারের চলমান সহিংসতা , দুর্নীতি ও প্রায় সকল ক্ষেত্রে অরাজকতাকে খানিকটা ধামাচাপা দিতে মন্ত্রী সভায় রদ বদল । কিন্তু শাক দিয়ে যে মাছ ঢাকা যায় না তা কি একবারও ভেবে দেখেন নাই মাননীয় পরধান্মন্ত্রি । নতুন মন্ত্রী আসবে,পুরানোরা যাবে , যারা সফল তাদের প্রশংসা হবে ,যারা ফ্লপ মেরেছে তাদের কে সরিয়ে দেওয়া হবে ,এটাই স্বাভাবিক । কিন্তু বর্তমানে দেখি যারা ফ্লপ তারাই বহাল তবিয়য়ে আর এমন কিছু মন্ত্রী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে যাদের সংসদ সদস্য পদ ই হুমকির মুখে , যিনি প্রশাসনে অস্থিরতার দায়ে অভিযুক্ত । তার হাতেই অবশ্য মানাই দমন নিপীড়ন । আর তাই তো এসেই পূর্ববর্তী সময়ের মন্ত্রীর পক্ষে নির্লজ্জ সাফাই । সাহারা না কি ৭৫ পরবর্তী সবচাইতে সফল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রি । সাহারা অবশ্যই সফল তবে তা শুধু মাত্র বিরোধী দল কে দমনে , তা আমাদের দেশে নতুন করে গুম চালু করার ক্ষেত্রে , ৪৮ ঘণ্টা আল্টিমেটাম দেওয়ার ক্ষেত্রে ,জনতার দুর্ভোগে নির্লজ্জ সাফাই গাওয়ার ক্ষেত্রে , ক্রস ফায়ার চালু রাখার ক্ষেত্রে আর ক্ষমতার অপ ব্যাবহার করে নিজের নির্বাচনী এলাকায় মূর্তিমান আতংক হওয়ার ক্ষেত্রে ।

যার সাথে তুলনা করা যায় আগের বারের মান্যবর বহু প্রতিভার অনন্য অধিকারী বাবর এর ক্ষেত্রে । যিনি বিরোধী দল নির্যাতনে , জঙ্গি উত্তানে সুদুর প্রসারি ভুমিকা পালন করেছেন । সাহার খাতুন আর বাবরের মাঝে বড় কোন তফাৎ নেই । এরা উভয়েই মুদ্রার এপিট ও অপিট । হাল হকিকত এবং আগের নির্লজ্জ ইতিহাস দেখে মনে হয় তাদের ছাড়িয়ে যাবেন ম খা আলমগির , এই অল্প সময়েই ।

বিদায় বেলায় সাহারার আকুতি আমি কখনোই সফল ছিলাম না ?????

দ্রষ্টব্য – ভালো কাজের ইনাম হিসেবে ওবাইদুল কাদের কে রেল মন্ত্রনালয় থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে , এখন আর রেলের দুর্নীতি নিয়ে চিন্তা করতে হবে না । চলুক মহা সমারোহে।