ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

একটি মস্ত বড় প্রবন্ধ লিখিব বলিয়া মনস্থির করিয়াছিলাম। ইহার জন্য বিষয় যেমন ঠিক করিয়াছিলাম, তেমনি কোথা হইতে শুরু করিবো আবার কোথায় যাইয়া শেষ হইবে তাহাও এক প্রকার ভাবিয়া লইয়াছিলাম। কিন্তু বর্তমান কালে ‘সংক্ষিপ্ত সংস্করণ’র যে চর্চা চলিতেছে তাহাতে আমার মনে হইলো লেখাটা হইবে একেবারে খামোখা। তাই ভাবিতব্য প্রবন্ধটির একটি সারাংশ লিখেতে বসিলাম।

দেশে শুধু নয়, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের অধিকাংশ মানুষ দুর্নীতি আর অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা কহিতেছেন। তাহাদের বক্তব্যের মূল কথা তাহারা দুর্নীতি-অনিয়ম অথবা শোষণের বিরুদ্ধে। অনেকের বক্তব্য এতটাই জোরালো যে, কথা কহিতে যাইয়া তাহার গলার ‘স্বর’ পরিবর্তন হইবার উপক্রম হয়। কিন্তু আমরা একবারেও ভাবিয়া দেখি নাই, যাহারা এই গোষ্টিভুক্ত অর্থাৎ দুর্নীতিবাজদের বিপক্ষে তাহারা সারাদিন বা সারা মাস জুড়িয়া যাহা আহার করেন এবং অন্যান্য খাতে ব্যয় করেন, তাহার কত অংশ স্বকীয় শ্রমের ফসল। চক্ষু বন্ধ করিয়া কহিতে পারি ইহার একটা বড় অংশ তাহাদের নিজ শ্রমের নহে, অন্যের শ্রমের লুন্ঠিত অংশ। ইহা ছাড়াও তাহারা প্রতিনিয়ত বাড়ি-গাড়ি করিতেছেন, মালিক হইতেছেন। অথচ তাহারা কহিতেছেন, আমরা দুর্নীতি বিরোধী।

হয়তো বা আমি-আপনিও ইহাদেরই গোষ্ঠিভুক্ত।

এমন সমাজ নিশ্চয় দীর্ঘ দিন চলিতে পারে না।