ক্যাটেগরিঃ দিবস প্রসঙ্গ

 

এডমন্টন, আলবার্টা , কানাডা (শনিবার, ২০ জানুয়ারী ) : কানাডার বাংলাদেশ হেরিটেজ এন্ড এথনিক সোসাইটি অব আলবার্টা গতকাল দুপুরে ইউনিভার্সিটি অব ম্যাকিইউনে ফুল আর শ্রদ্ধায় ভাষা শহীদদের স্মরণ করে ও একুশে হেরিটেজ পদক ২০১৬ বিতরন করে।

বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শহরের ভাষাপ্রেমীরা ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ভাস্কর্যে’ ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় তারা একুশের চেতনা সমুন্নত রাখার প্রতি গভীর অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন ও প্রবাস-প্রজন্মে সে চেতনার বিকাশ ঘটানোর দৃঢ় প্রত্যয় ঘোষনা করেন।

 

BHESA_016

 

চামেলী লস্করের নেতৃত্বে কিশোর কিশোরীরা ( রাহাত ভুইয়া, নিগার সুলতানা, এম এরফান আহমেদ, ম্যারোলিন, ক্যারোলিন, প্রমুখ) কটি একুশের গান পরিবেশন করে। সভায় বেসা সভাপতি মাসুদ ভূইয়ার সভাপতিত্বে আলোচনা ও একুশে হেরিটেজ পদক ২০১৬ দেলোয়ার জাহিদ, ও সালমা জাহান এর মধ্যে তা বিতরণ করা হয়।

 

BHESA_003

 

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ ও সাংবাদিকতায় তিন দশক ধরে বিশেষ অবদানের জন্য পদকপ্রাপ্ত দেলোয়ার জাহিদ অনুষ্ঠানে দীর্ঘ বক্তব্য রাখেন। মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার জাহিদ বলেন, “একুশ আমাদের চেতনার সুতিকাগার, এই দিনেই আমাদের মহান একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস এর রূপকারদের স্মরণ করতে হবে। মহান একুশের চর্চায় এখনো সাম্প্রদায়িকতা ও লিঙ্গ বৈষম্য রয়েছে। আমাদের মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে প্রতিহত করার শপথ নিতে হবে।” তিনি আরো বলেন, বাঙালি জাতির, ভাষাভিত্তিক জাতিসত্তার অসাধারণ উত্থানে মিটিং, মিছিল, সংগ্রামে নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণ ছিলো ভাষা আন্দোলনে প্রজ্জলিত শিখার মতো, যা জ্বলে উঠেছিলো সারাদেশে। মাতৃভাষা রক্ষার জন্য বুকের তাজা রক্ত দিয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন সালাম, জব্বার, রফিক, শফিক সহ অনেকেই। কিন্তু ভাষা আন্দোলনে মেয়েদের দৃশ্যমান ভুমিকাগুলোকে গত ৬৪ বছরেও রাষ্ট্র স্বীকৃতি দেয়নি। বাংলাদেশের নারীরা যেখানে আজ বিশ্বশান্তি রক্ষায় অবদান রাখছে সেখানে তাদের প্রতি চরম অবহেলাকে মোটেই মেনে নেয়া যায়না। মেনে নেয়া যায়না, বাংলা ভাষা প্রচলন আইন বাস্তবায়নের কোন নিষ্ক্রিয়তা , মেনে নেয়া যায়না শহীদ ধীরেন দত্ত ও রফিকুল ইসলামের প্রতি কোন অবজ্ঞা অবহেলা। গত কবছরে কানাডায় একুশের ঢেতনাকে উল্লেখযোগ্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন প্রবাসী বাঙ্গালীরা . একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বিভিন্ন সংগঠন ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার জাহিদ তার পদক ও সন্মাননাকে পিতামাতা এবং সকল ভাষা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদের প্রতি উৎসর্গ করেন।

 

BHESA_013

 

রিকার্ডো মিরান্ডা, আলবার্টার সংস্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রী এবং ডঃ ডেভিড সোয়ান, এমএলএ লিবারেল পার্টির পক্ষ থেকে একুশের চেতনা সমুন্নত করার আহ্বান জানিয়ে পৃথক প্রথক বার্তা পাঠিয়েছেণ।

এছাড়াও সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন কমিউনিটি শিক্ষায় পদকপ্রাপ্ত শিক্ষিকা বাংলা স্কুল প্রধান সালমা জাহান, বাংলাদেশ হেরিটেজ এন্ড এথনিক সোসাইটি র সাধারন সস্পাদক ফয়সল ভূঁইয়া, সহসভাপতি (দায়িত্ব প্রাপ্ত) ও কোষাধ্যক্ষঃ অ্যাডওয়ার্ড মণ্ডল, উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক সম্পাদকঃ চাঁদনি সুলতানা লস্কর, ইয়ুথ অ্যাফেয়ার্স সম্পাদকঃ মো. হাবিবুর রহমান , সোসাল অ্যাফেয়ার্স সম্পাদকঃ মুহাম্মদ আলী এবং এশিয়ান নিউজ এন্ড ভিউজ সত্বাধিকারী সাইফুর হাসান প্রমুখ।