ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

একনেক বৈঠকে প্রস্তাবিত কুমিল্লা বিভাগের নামকরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘ময়নামতি বিভাগ’করার ইচ্ছা প্রকাশের বিষয়টি জনমনে ধোয়াসা সৃষ্টি করেছে।কুমিল্লাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি কুমিল্লাকে বিভাগ করার।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সে প্রত্যাশা পূরণ করেছেন, এজন্য কুমিল্লাবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ. ‘ময়নামতি বিভাগ’নামকরণে জনমনে বিভ্রান্তি, ক্ষোভ ও তীব্র হতাশার সৃষ্টি করতে পারে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের ভাষ্য মতে ভবিষ্যতে কোনো জেলার নামে আর বিভাগের নাম এক হবে না। নতুন নামকরণ করা হবে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদে বিষয়টি উপস্থাপনে পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব কারো অজানা নয়। জনমতের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে কুমিল্লা বিভাগ নামকরণের সিদ্ধান্তটি আশু পুনর্বিবেচনার অনুরোধ রইলো। চট্টগ্রাম বিভাগের অধীন একটি জেলা- কুমিল্লা । ১৯৬০ সালে ত্রিপুরা জেলার নামকরণ করা হয় কুমিল্লা, ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগ পরবর্তী সময়ে কুমিল্লা সমতট জনপদের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক স্থান বলে পরিচিত হয়ে উঠে।সপ্তম থেকে অষ্টম শতকের মধ্যভাগ পর্যন্ত এ অঞ্চলে বৌদ্ধ দেববংশ রাজত্ব করে যার নিদর্শনাদি আজো রয়েছে ময়নামতি যাদুঘরে। মোঘলদের দ্বারা ও শাসিত হয় কুমিল্লা যা পরে ১৭৬৫ সালে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানীর অধীনে আসে। ১৭৬৯ খ্রিস্টাব্দে রাজস্ব আদায়ের সুবিধার্থে তখন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানী প্রদেশে একজন তত্ত্বাবধায়ক নিয়োগ করে।

প্রাচীন নাম ত্রিপুরা থেকে কুমিল্লা, তখন থেকে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও কালেক্টর পদটির নামকরণ হয় ডেপুটি কমিশনার। কুমিল্লার দু’টি মহকুমা চাঁদপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে ১৯৮৪ সালে পৃথক জেলা হিসেবে পুনর্গঠন করা হয়। কুমিল্লাকে বিভাগ করনের দাবি দীর্ঘদিনের। ড. আখতার হামিদ খানের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন গবেষণা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পল্লি উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড), কুমিল্লার ময়নামতি সেনানিবাস সহ শতবর্ষের ঐতিহ্যে লালিত এ কুমিল্লা. এ কুমিল্লাকে নিয়ে যে কোন ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াবে স্বদেশ ও প্রবাসের কুমিল্লাবাসী. ‘ময়নামতি বিভাগ নামকরণের সিদ্ধান্তটি পুনঃ বিবেচনা করে তা কুমিল্লা বিভাগ করা হউক এটা আপামর জনগনের প্রত্যাশা।
লেখকঃ বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কানাডা ইউনিট কমান্ডের অন্যতম নির্বাহী ও বাংলাদেশ হেরিটেজ মিউজিয়ামের সভাপতি, এবং বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অব আলবার্টার সভাপতি.

মন্তব্য ১ পঠিত