ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনির সঙ্গে বৈঠকে গ্রামীণ ব্যাংক নিয়ে উদ্বেগের কথা সরাসরি জানিয়েছেন হিলারি ক্লিনটন। বৈঠকের প্রারম্ভে সরাসরি জানিয়ে হিলারি বলেন, “বাংলাদেশ সরকারকে আমরা এ উদ্বেগের কথা জানিয়েছি। আমরা আশা করছি, গ্রামীণ ব্যাংক আগের মতোই বাংলাদেশের জনগণের কল্যাণে কাজ করে যেতে পারবে।” এটাই কি ছিল বৈঠকের মুল এজেন্ডা ? কেমন বোধ করলেন আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই বৈঠকের পর ? হিলারি ও দিপু মনির যে কয়টা ছবি ছাপা দেখলাম – তাতে আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনির চেহারা খুব মলিন মনে হোল। কয়েকদিন আগে আমাদের অর্থমন্ত্রীও বিদেশের মাটিতে পদ্মা সেতুর জন্য বিদেশী অর্থ বরাদ্দ স্থগিত হওয়ার খবর জেনে আসলেন। কেমন লাগছে আমাদের মাননীয় মন্ত্রীদের এ ধরনের ব্যাবহার ? অবশ্য এ ধরনের ব্যাবহারে মনে হয় উনারা অভ্যস্ত ! তা না হলে তো উনারা আমাদের তুখার রাজনিতিবিদ হবেন কেমন করে ? লজ্জা।