ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

 
ছাদ বাগান

আমরা যারা নগরে বাস করি গাছ লাগানোর জমি পাব কোথায় ? আর সেজন্যই নিজের বাড়ির ছাদটাকেই জমি বানিয়ে সেখানে নানা ধরনের শাকসবজি, ফল, ফুলসহ বিভিন্ন গাছ লাগানো যায় ।আর তাতে নগরীর প্রতিটি বাড়ির ছাদ হয়ে উঠতে পারে একখন্ড সবুজ বাগান। শহরের ছাদ ও ব্যালকনিতে বাগান করা এখন আর নতুন কোন বিষয় নয়। যে কোন এলাকার রাস্তার পাশে দাড়িয়ে উপরের দিকে তাকালেই ছাদ ও ব্যালকনিতে বেশ কিছু বাগান চোখে পড়ে। শহরের পরিবেশ রক্ষায় এ ধরণের ছাদ ও ব্যালকনি বাগানের ভূমিকা অপরিসীম। বিষমুক্ত টাটকা শাক-সব্জি, ফল-মূল উৎপাদন করে পরিবারের পুষ্টির চাহিদা মেটায় ছাদ বাগান । ছাদ বাগানে দৈহিক পরিশ্রমের মাধ্যমে সুস্থ্য জীবন যাপনও করা যায় ।প্রকৃতির সাথে বসবাসের উপায় হিসেবে আজকাল শহরের অনেক বাসিন্দারাই ঝুঁকছেন ছাদ অথবা ব্যালকনি বাগানের দিকে। ব্যাক্তিগতভাবে তৈরী এইসব গার্ডেনারদের বাগান চর্চার কাজকে আরও এগিয়ে নিতে গঠিত হয়েছে ছাদ বাগানের সংগঠন “আরবান রুফ গার্ডেনার্স সোসাইটি”। এই সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবীদের নিরলস পরিশ্রমে দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে শহুরে বাগানের সংখ্যা।ছাদে বাগান করে ছাদের তাপমাত্রা ৩০ থেকে ৪০ ভাগ কমানো সম্ভব। এর মাধ্যমে পরিবেশের ভারসাম্যও বজায় থাকে। অন্যদিকে শাকসবজি ও ফল-মূল উৎপাদন করে পরিবারের পুষ্টির চাহিদা অনেকাংশে মেটাতে পারে ছাদ বাগান। সঠিক পরিকল্পনা থাকলে ছাদের বাগান থেকে আয়ও করা যায়।স্যাটেলাইট যুগে শিশুদের মানসিক বিকাশেও এধরণের বাগান গুরুত্ত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। যে কেউ দৈনন্দিন কাজের ফাঁকে সামান্য সময় ব্যয় করেই করতে পারেন একটি সুন্দর সবুজ ছাদ বাগান।একেবারে  নতুনদের জন্য হাতে-কলমে প্রশিক্ষনের ব্যবস্থাও করছে “আরবান রুফ গার্ডেনার্স সোসাইটি” নামের এই সংগঠনটি।সদস্যরা বিভিন্ন সময় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপস্থিত হয়ে স্বচক্ষে দেখতে পারছেন নতুন নতুন সাজানো-গোছানো বাগান, জানতে পারছেন গাছের যত্নআত্তি সম্পর্কে।শিখতে পারছেন ছাদে/ব্যালকনিতে সহজে দৃষ্টিনন্দনবাগান করার নানান সহজ কলাকৌশল ।

যে কেউ সংগঠনটির সদস্য হতে পারেন কোন মাসিক চাঁদা ছাড়াই। ছাত্র/ছাত্রীদের (অনার্স পর্যন্ত) জন্য সদস্য ফি ১০০ টাকা (এককালীন) এবং অন্যদের জন্য ২০০টাকা (এককালীন)।

 

ওয়েব সাইটঃ www.urgsbd.com

ফেসবুক পেইজঃ www.facebook.com/urgs.bd

ইমেইলঃ info@urgsbd.com