ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

খুলনা বিভাগের দশ জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট চলছে। চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ। গন্তব্যে যাওয়ার জন্য গুণতে হচ্ছে তিনগুণ অর্থ। আদালত এক বাস চালককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেওয়াই পরিবহন শ্রমিকেরা এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। আদালত আইনী প্রক্রিয়া শেষে তার বিরুদ্ধে এই রায় দিয়েছে। রায়ে তারা সন্তুষ্ট না হলে আইনী প্রক্রিয়াই আপিল করতে পারে, কিন্তু সেটা না করে সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে ধর্মঘট পালন করতে পারেনা। বড় অদ্ভুত লাগে তাদের এইরকম কর্মকান্ড দেখে।

Gabtoli-2

চালকদের ভুলের কারণে প্রতিদিন বহু মানুষের প্রাণ যাচ্ছে, বহু পরিবার তাদের স্বজনকে হারাচ্ছে। কিন্তু তাদের এই অন্যায়ের কারণে যখন আইনী সাঁজা হচ্ছে তখনই তারা মানুষকে জিম্মি করে অবৈধ আবদার আদায়ের চেষ্টা করছে। তারা অন্যায়ও করছে আবার আন্দোলনও করছে। রাস্তাটা তাদের, রাস্তায় আইনও তাদের।

রাস্তায় প্রতিদিন আমরা চলছি তাই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটলে দোষটাও হয়তো আমাদের। দুর্ঘটনা কাকে বলবো? যেটা হঠাৎ বছরে দু’একবার ঘটে। কিন্তু যেটা প্রতিদিন ঘটছে, সেটাকে কি বলবো? চালকের বেপরোয়া গতি, মাদক সেবন, অদক্ষতা সড়ক দুর্ঘটনার মূল কারণ। চালকের ভুলে সাধারণ মানুষের মৃত্যু হয় কিন্তু দায়টা ওরা নিতেই চাইনা। তাদের কথা শুনলে মনে হয় ভুলটা পথচারীই ছিলো। আমাদের মতো নিরীহ মানুষদের শুধু ওদের লীলা দেখে যেতে হবে। কারণ রাস্তার রাজাই ওরা, আমরা সাধারণ প্রজা মাত্র।