ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

কৃষি বিজ্ঞান ধারায় কৃষি ব্যবসার ধারনা নিয়ে ২০০৬ সালে থেকে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে এগ্রিবিজনেস ম্যানেজমেন্ট অনুষদ শুভযাত্রা সূচনা করে; যা এখন পর্যন্ত এদেশে প্রথম। এই অনুষদের শিক্ষার্থীরা এমবিএ কোর্স খোলার দাবি জানিয়ে এসেছে অনেক দিন থেকেই। তবুও তাদের এই প্রাণের দাবিটি যেন কোন মূল্য পাচ্ছেনা শেকৃবি’র প্রসাশনের কাছে। যদি মূল্য থেকে থাকে তবে কোন অদৃশ্য কারনে যৌক্তিক এ দাবিটি পূর্ণ করা সম্ভব হচ্ছেনা।

এগ্রিকালচার বিভাগ থেকে একজন শিক্ষার্থীর এমএসসি করার পরে এমবিএ করার সুযোগ থাকলেও এগ্রিবিজনেস ম্যানেজমেন্ট অনুষদের এ সকল শিক্ষার্থীরা শুধু মাত্র এমবিএ করার সুযোগটিও পাচ্ছেন না। এ পেক্ষাপটে এই অনুষদে এমবিএ কোর্স চালু করা সময়ের দাবি। আর সেই সংগত দাবিটি নিয়ে শেকৃবি’র শিক্ষার্থীরা আজ আন্দোলনরত।

আন্দোলনের সহজ পথে যদি ফসল ঘরে না ওঠে তবে কিন্তু তা গতিপথ পরিবর্তন করতে বাধ্য। সহজাত আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা সহজ পথে সফলতা না পেয়ে যদি অনশন মূলক প্রতিবাদে জড়িয়ে যান, তবে তার ফল হবে অনেক ভীতিকর ও জটিল। অনশনকারী কোন ব্যাক্তি দুদিন না খেতে পারলে তাদের মানসিক অবস্থা এমন হয় যে সে যেন মৃত্যুকে বরন করতে আর কোন দ্বিধা মনে রাখে না। সে তখন মরনকে বরন করতে ভয় পায়না। উদ্ভূত পরিস্থিতির এ দায়ভার তখন কে বহন করবে। মানবাধিকার সংগঠনগুলো কি মুখ চেপে থাকতে পারবে। যাহোক, এমন পরিস্থিতি হোক তা কারোই কাম্য নয়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের জীবনের দিকে চেয়ে হলেও, তাদের মুখে ও চোখে একটু হাসির ঝলক খুজতে হলেও আসুন না তাদের এই ছোট্ট চাওয়াটা পূরণ করি। তারা তো এই ক্যাম্পাসেরই সন্তান, তাই না?