ক্যাটেগরিঃ জানা-অজানা

একটি বামন নক্ষত্র
নতুন একটি গবেষণা এটা প্রমান করতে সক্ষম হয়ছে যে পৃথিবির কোর সৃষ্টি হয়ছে সুপারনোভা বিস্ফোরণ থেকে। যখন একটি সুপারনোভার বিস্ফোরণ ঘটে তখন প্রচুর পরিমাণের আয়রন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে এই ছড়িয়ে পড়া আয়রন এক একটি গ্রহের কেন্দ্র হিসেবে কাজ করে। নক্ষত্রে ফিউসন প্রক্রিয়ায় হাইড্রোজেন থেকে হিলিয়াম … এভাবে ভারী আয়রন পরমাণু গঠিত হয়। যখন একটি নক্ষত্র জীবনের শেষ পর্যায়ে পৌছে তখন একটি বিস্ফোরণের মাধ্যমে এই পরমাণু গুলো সংগঠিত হয়ে গ্রহের প্রাথমিক সৃষ্টি পর্ব তৈরি করে, যা থেকে বিভিন্ন আকারের গ্রহ সৃষ্টি হয়ছিল।

এল এ টাইপ সুপারনোভা

মুলত আয়রন পরমাণু সৃষ্টিতে টাইপ এল এ সুপারনোভাকে দ্বায়ী করা হয়ে থাকে। এই টাইপ এল এ নক্ষত্রের একটি পর্যায়, যখন একটি নক্ষত্র ভারী ও মৃত হয় তখন তাকে “সাদা বামন নক্ষত্র” হিসেবে ডাকা হয়ে থাকে।

এই “সাদা বামন নক্ষত্র” মহাবিশ্বের পরিধি সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে। এই সাদা বামন নক্ষত্রে পরিণত হওয়ার জন্য একটি নির্দিষ্ট ভর থাকা প্রয়োজন। আর এই ভরে পৌঁছতে গেলে একটি নক্ষত্রকে তার জীবনের শেষ পর্যায়ে পৌঁছতে হবে। এই সময় ওই নক্ষত্র থেকে আগত আলো বিশ্লেষণ করে সেটি কত দূরে তা পাওয়া যাবে।

তথ্যসূত্রঃ কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারে

ফেইসবুকে আমি