ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

গত ৫ জানুয়ারীকে কেন্দ্র করে ২০ দলীয় জোটের টানা অবরোধ ও হরতাল চলছে।দিনের বেলায় জনজীবন স্বাভাবিক থাকলে ও রাতের বেলায় ভংয়কর হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ। আর এই ভংয়কর বস্তুর নাম হল পেটলবোমা যা স্বাধীনতার পর আর কখই দেখিনি বাংলাদেশ।পরুষ থেকে নারী শিশু থেকে বৃদ্ধ কেউই এর হাত থেকে রেহাই পাচ্ছেনা।হাজারো আর্তনাদ এখন হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে এ কেমন মানবতা?গত কয়েকদিন ধরে পত্রিকায় বেগম জিয়ার ফোনআলাপন নিযে দেশে তোলপাড় চলছে যেখানে উনি নিজেই নির্দেশ দিচ্ছেন সংহিসতার জন্য।দেশের সাধারন মানুষের প্রশ্ন আপনি কেমন মা, মা হয়ে হয়ে আরেক মায়ের সন্তান কেড়ে নিতে নিদের্শ দেন।তাই আমরা সাধারন মানুষ ব্যক্ত হিন কন্ঠে বলতে চাই যেহেতু আপনি নির্দেশ দিয়েছেন সেহেতু আপনি নির্দেশ তুলে নিতে পারেন।এভাবে ঘড়ে বসে আন্দোলন করে কি লাভ এভাবে কি সরকার পতন করতে পারবেন?মনে হয় পারবেন না।এসি বাসায় বসে কখনও আন্দোলন হয় না,আগে নিজ দলের নেতাদের নিয়ে বসুন কিভাবে শান্তিু পূর্ন আন্দোলন করা যায় তারপর সরকারের সাথে নির্বাচন নিয়ে আলোচনা করুন।

আর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে বলতে চাই আপনি যেহেতু দেশের মা বাবা দুটই তাই যততাড়াতাড়ি পাড়ুন নাশকতা কারীদের চির্নিত করে দেশের প্রচলিত আইনে তাদের বিচার করুন।আপনি আমাদের সাধারন মানুষের জান মালের ধারক বাহক।আপনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর মেয়ে আপনিই পারবেন আমাদের নিরাপত্তা দিতে।আর একটা কথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে বলতে চাই আপনার পুলিশ বাহীনি কে নিয়ে  দেশের জনমনে একটা প্রশ্ন আছে যে নাশকতাকারীদের সাথে কিছু পুলিশ সদস্য জড়িত থাকতে পাড়ে তাই্ এদের নির্মুল করা যাচ্ছে না সড়িষা ক্ষেতে যদি ভূত থাকে তাহলে নিমুল করা সম্ভবনা। তাই এদের বিরুদ্ধে একটু সজাগ দৃষ্টি রাখবেন।