ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে সহযোগিতার মধ্যে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র তথা গোটা বিশ্বের কল্যানে আমেরিকান মুসলমান সম্প্রদায়কে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন ভার্জিনিয়ার আর্লিংটনস্থ বায়তুল মোকাররম মসজিদের ইমাম। শুক্রবার জুম্মার নামাজের খুতবায় তিনি এ আহবান জানান। সেখানে নামাজ পড়তে আসা মুসল্লীরাও একই আহবান জানান যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমান সম্প্রদায়ের প্রতি।

জুম্মার নামাজের পর ভয়েস অব আমেরিকার সঙ্গে সাক্ষাৎকারে বাইতুল মোকাররম মসজিদের ইমাম কৌশিক আহমেদ বললেন ৮ই নভেম্বরের নির্বাচনের ফলাফল হওয়ার পর নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প তার বক্তব্যে সমতা ও ঐক্যের কথা বলেছেন।

আর তাতে মনে হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণার সময় তাঁর বিভিন্ন বিতর্কিত বক্তব্যের সঙ্গে এর কোনো মিল নেই। সেই কারনে আমি মুসলমান সম্প্রদায়ের কাছে এই বার্তা দিচ্ছি যে আসুন সবাই মিলে নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে সহযোগিতা করি যাতে আমাদের অধিকার অক্ষুন্ন থাকে এবং চেষ্টা করি যেনো আগের চেয়ে আমেরিকান নাগরিক ও মুসলমান হিসাবে আমরা আরো ভালো করে আমাদের বিশ্বাস প্রতিষ্ঠার মধ্যে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কল্যানে কাজ করতে পারি।

এর আগে কাউন্সিল অন আমেরিকান ইসলামিক রিলেশন্স এর পক্ষ থেকে শুক্রবার জুম্মার নামাজের খুতবায় খতিবদের প্রতি আহবান জানানো হয় তাঁরা যেনো নির্বাচন পরবর্তী পরিবর্তিত অবস্থায় মুসলমান সম্প্রদায়কে সাহস দিয়ে ধৈর্য ও সহনশীল হয়ে নতুন প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করেন। ইমাম কৌশিক আহমেদ বলেন সেই বার্তাই আমি শুক্রবারের জুম্মার নামাজের খুতবায় বলেছি।

জুম্মার নামাজের পর বেশ কয়েকজন মুসল্লির সঙ্গে কথা হয়। জনৈক খসরু আলম বলেন, আল্লার কাছে দোয়া করি তিনি যেনো নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে সমর্থ করেন মানবতার কল্যানে কাজ করার। ইউনুস নামে এক আফগান আমেরিকান মুসল্লী বলেন আমরা নতুন প্রেসিডেন্টের কাছে ভালো কাজ করার আশা করি। আশা করি সকলেই ভালো কাজ করবেন। নতুন প্রেসিডেন্টও ভালো করবেন এটিই কামনা”।

বাংলাদেশি আমেরিকান গিয়াস উদ্দিন বললেন, আমরা চাই নতুন প্রশাসন শান্তির জন্যে কাজ করবেন।

নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি ওসমান জানালেন যুক্তরাষ্ট্রের জন্যে তিনি একজন ভালো প্রেসিডেন্ট হবেন এই আশা রইলো। আমি একজন টিনেজার। আশা করি তিনি বর্নবাদ ধর্ম জাতি সব রকম বৈষম্যের উর্ধে থেকে সকলের কল্যানে কাজ করবেন”।

শুক্রবার জুম্মার নামাজে বাইতুল মোকাররম মসজিদ ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য মসজিদগুলোতেও গোটা বিশ্বের শান্তি ও কল্যান কামনা করে দোয়া করা হয়।