ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর থানার চন্দরা পল্লী বিদুৎ এলাকায় দ্বিতীয় স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক স্ত্রী-কে গ্রেপ্তার করেছেন। পুলিশের ধারনা তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এলাকাবাসী জানায়, চন্দরা পল্লী বিদুৎ এলাকায় মিয়াজ উদ্দিনের বাড়ীতে ২য় স্ত্রী-কে নিয়ে ভাড়া থাকতেন আজাদুল ইসলাম(৩০), প্রতিদিনের মত স্ত্রী-কে নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে ঘুমাতে যান আজাদুল ইসলাম। সকাল হলে আশে পাশের লোকজন সকলেই ঘুম থেকে উঠলেও আজাদুলের রুম বন্ধ থাকে। পাশের রুমের ভাড়াটিয়ারা তাদের ডাকাডাকির এক পর্যায়ে স্ত্রী ফাতেমা বেগম(২৫) দরজা খুলে দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে লোকজনের সন্দেহ হয়। তার রুমে গিয়ে বাড়ীর লোকজন আজাদুলের মৃত দেহ খাটের উপরে পরে থাকতে দেখে তার স্ত্রী-কে আটক করে কালিয়াকৈর থানা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্বার করে গাজীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। স্ত্রী-কে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। আজাদুল ইসলাম গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার বকচর গ্রামের মৃত:মজিবুর রহমানের ছেলে। পেশায় তিনি ছিলেন একজন ড্রাইভার। স্ত্রী ফাতেমা বেগম একই থানার জীবনপুর গ্রামের ইনতাজ আলীর মেয়ে। সে একটি পোশাক শিল্প কারখানায় চাকরী করতেন। এ ব্যাপারে কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক(এস আই) রফিকুল ইসলাম জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী-কে আটক করা হয়েছে।