ক্যাটেগরিঃ ধর্ম বিষয়ক

 

১- হযরত আনাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন- “আল্লাহ সুবহানাতায়ালা বলেন, হে বনী-আদম! তুমি আমাকে যতক্ষন ডাকবে আর যতক্ষণ আশা করবে, আমি তোমার কৃত গুনাহ সমূহ ক্ষমা করে দিব, আমি কারো পরোয়া করি না। হে বনী-আদম! যদি তোমার গুনাহ ঊর্ধব আকাশের সমান হয় আর তুমি আমার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা কর, আমি তোমাকে ক্ষমা করে দিব। হে বনী-আদম! তুমি যদি পৃথিবী সমান গুনাহের বোঝা নিয়ে আমার কাছে আস যে অবস্থায় তুমি আমার সাথে কাউকে শরীক করো না, তবে আমিও তোমার জন্য পৃথিবীসম ক্ষমা নিয়ে আসবো।– (তিরমিযী শরীফ, মুসনাদে আহমেদ)

২- হযরত আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন- “আল্লাহ সুবহানাতায়ালা বলেছেন-“ আমি আমার পুন্যবান বান্দাদের জন্য জান্নাতে তৈরী করে রেখেছি এমন সব নেয়ামত যা কেউ কোন দিন চোখে দেখেনি, কোন কানে শুনেনি, কোন মানুষের কল্পনাও আসে নি। (মেশকাত শরীফ )
৩- হযরত আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন- “আল্লাহ সুবহানাতায়ালা বলেছেন-“ হে বনী আদম! দান করো। আমি তোমাকে
দান করবো। (সহীহ বুখারী শরীফ, মুসলিম শরীফ)

তথ্য সূত্রঃ চল্লিশ হাদীসে কুদসী, লেখকঃ ডঃ ইযযুদ্দিন ইবরাহীম, ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ।