ক্যাটেগরিঃ সেলুলয়েড

 

কি শিরোনাম দেখেই হয়তো আমায় নব্য রাজাকার উপাধী দিয়ে দিয়েছেন। তাইনা ?

হুম আসলেই আমি মনে এদেশের টিভি সিরিয়াল আমি কেন দেখব ! ( আমি হিন্দি সিরিয়াল কেও প্রাধান্য দিচ্ছিনা ) একটা নাটকেও নতুন কোন স্টোরিলাইন নাই। নাই কোন Genre সিস্টেম।

আমরা এখনো সেই মান্ধাতা আমলের ৩০ মিনিটের একটি ইপিসোডের বাধ্য বাধকতায় বন্দী। যেই ৩০ মিনিট দেখানো হয় তার মধ্যেও ৩ বার এড ব্রেক যা ইস্টিমেটলি ১০ মিনিট শেষ করে ফেলে। তার উপর সপ্তাহে দুদিন। বাহ কি সুন্দর সিস্টেম তাইনা। আর বাংলাদেশের স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল গুলো তো এড কে রীতিমত গুপ্তধন পেয়ে ফেলেছে। এক বার শুরু হলে থামতেই চায়না। কিছু না করলেও দর্শক বিরক্ত করার কাজটা ভাল করেই করতে পারে।

 

নাটক এ OST, Background Music হচ্ছে নাটকের প্রান। তবে এদেশের নাটক নির্মাতাদের এ জ্ঞ্যান টা আছে বোধ করি আমায় মনে হয় না। কিছু দিন আগে দেখলাম মোশারফ করিম এর একটা নাটকের ব্যাকগ্রাউন্ডে ( Leonardo Dicaprio ) এর Inception মুভির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক চলছে। কেন ভাই আমাদের কি মিউজিক মেকার নাই। নেই কোন সৃজনশীলতা। শুধু আছে অন্য দেশের কনটেন্ট কপি পেস্ট করার ক্ষমতা।

 

আগে তাহসান এর নাটক দেখতাম ভাল লাগতো, তার কিছু নাটক দেখার পর যা বুঝতে পারলাম। সব নাটকেই তার একটি মেয়ের সাথে দেখা হয় তার পর ভাললাগা এ থেকে ভালবাসা তারপর মেয়ে হারিয়ে যায় তাকে খুজে পেতেই নাটক শেষ। ঘুরি ফিরি মামা বটরতল। এক স্টোরি কেন্দ্রিক নাটক।

 

এদেশের নাটক কে টিভি সিরিস ও বলা ভুল। কারন, বেশির ভাগ হাই বাজেট এর নাটক এক ইপিসোডেই শেষ হয়ে যাচ্ছে। নাটকে কোন আগা মাথা নেই। মনে হয় ইউটিউব কোন পুচকে ছেলের নির্মিত শর্ট ফিল্ম দেখছি। আর কিছু নাটক তো মাশাআল্লাহ ৩০০ পর্ব ( ১৫ মিনিটের নাটক এড বাদ দিলে ) এর নাটক।

 

পরিশেষে আমি মনে করি হিন্দি সিরিয়ালের ৩০ মিনিট আর ৩ বার এড দেয়া ঐতিহ্য থেকে বেরিয়ে ইউএস, কোরিয়ান টিভি সিরিয়াল গুলোর মত ১ ঘন্টার ইপিসোডে আনা হোক। হোকনা সেটা সপ্তাহে দুদিন, কিন্তু দর্শক দেখে শান্তি তো পাবে। এখন কিছু ম্যাঙ্গো পিপল বলবে আমরা নিজেদের ঐতিহ্য ছেড়ে কেন ওয়েস্ট্রান কালচার ধরব। আমি বলব, তাহলে ১৫ মিনিটের নাটক ই কি আমাদের ঐতিহ্য ?